বার্তা পরিবেশক:
‘অনুসন্ধান কক্সবাজার’ নামে এক ফেইসবুক পেইজে উদ্দেশ্যমূলকভাবে মিথ্যা তথ্য প্রকাশ করে শহরের দক্ষিণ তারাবনিয়ার ছাড়ার রেজাউল করিম (২৯) নামে এক যুবক ও তার পরিবারের সদস্যদের মান ক্ষুন্ন করা হয়েছে। এতে ওই পরিবার সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন হয়ে দীর্ঘ দিনের অর্জিত সম্মান হারিয়েছে। ফেইজবুক পেইজে এমন মিথ্যা তথ্য প্রকাশ করায় কক্সবাজার সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
কক্সবাজার সদর থানায় দায়েরকৃত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, শহরের দক্ষিণ তারাবনিয়ার ছড়া কবরস্থন রোড়ে’র জাকের আহমদের ছেলে রেজাউল করিম (২৯) এক গ্যাস কোম্পানী’র (টোটাল) অধিনে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কর্মরত আছেন। স্বভাবগত কারণে নিজ এলাকায় মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে তিনি প্রতিবাদ করে আসছিল। প্রতিবাদের কারণে এই এলাকার মাদক ব্যবসায়ীরা তার উপর ক্ষুব্ধ। পরে মাদক ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট নিজেদের মত করে ‘অনুসন্ধান কক্সবাজার’ নামে ফেইসবুক পেইজে রেজাউল করিম ও তার পরিবারের সদস্যরা উল্টো মাদক ব্যবসা সহ ছিনতাইমূলক অপরাধের সাথে জড়িত আছে বলে মিথ্যা তথ্য প্রকাশ করেছে। ওই পেইজে উল্লেখ করা হয়েছে রেজাউল কমির, তার ভাই জয়নাল আবেদীন, তার জেঠাত ভাই আবুল হাশেম ও তার বৃদ্ধ-পিতা-মাতা’ও নাকি মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। যদিও তার দুই ভাই বিদেশে এবং এক ভাই এনজিওতে চাকরি করছি। এছাড়া তার বাবা সততার সাথে ব্যবসা করে একজন সফল ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিত। তাদের বিরুদ্ধে এই ধরণের মিথ্যা তথ্য প্রকাশ করায় পুরো পরিবারের সামাজিকভাবে মানক্ষুন্ন হয়েছে। ফেইসবুক পেইজে এসব দেখে রেজাউলের বাবা মানুষিক চাপে অসুস্থ্য হয়ে পড়েছিলেন। তিনি ক্ষোব আর হতাশা হয়ে বলেন ভিত্তিহীণ একটি ফেইজবুক পেইজে এভাবে কারো সম্মান নষ্ট করার কোন অধিকার নেই। তিনি প্রশাসনের কাছে এর বিচার কামনা করছেন।
রেজাউল করিম বলেন, এলাকায় মাদক সহ নানা অপকর্মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় উদ্দেশ্যমূলকভাবে ‘অনুসন্ধান কক্সবাজার’ নামে ফেইজবুক পেইজে এমন ভিত্তিহীন ও মিথ্যা তথ্য প্রকাশ করে পুরো পরিবারের মানক্ষুন্ন করা হয়েছে। তার বৃদ্ধ বাবা-মা এমনিতে অসুস্থ্য। এই ঘটনার পর তারা আরো বেশি ভেঙ্গে পড়েছেন। এই অবস্থায় তার হৃদরোগে আক্রান্ত বাবা’র যদি কিছু হয়ে যায় এর দায়ভার কে নেবে? ভিত্তিহীন এসব ফেইজবুক পেইজে অর্থের বিনিমনে মিথ্যা তথ্য ছাপিয়ে কারো অর্জিত সম্মান নষ্ট করার কোন মানে হয়না। এসবের বিরুদ্ধে প্রশাসনের ব্যবস্থা নেওয়া দরকার। অন্যতায় অর্থলোভী এসব ফেইজবুক পেইজ কারো মানক্ষুন্ন করতে বিন্দু মাত্র চিন্তা করবেনা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •