প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

জাতিসংঘের নারী বিষয়ক সংস্থা ইউএন উইমেন টেকনাফ উপজেলা পরিষদের হলরুমে জেন্ডার সংবেদনশীল সাংবাদিকতা বিষয়ক একটি সংলাপ ও ওরিয়েন্টেশন সেশনের আয়োজন করে। মঙ্গলবার (১৫ জুন,২০২১) অনুষ্ঠিতএই অনুষ্ঠানে ২৫ জন স্থানীয় সাংবাদিক (অনলাইন, সংবাদপত্র, টেলিভিশন এবং রেডিও)।টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) পারভেজ চৌধুরী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানটির মূল লক্ষ্য ছিল গণমাধ্যমে নারী ও পুরুষের ভারসাম্য রক্ষা, নারীকে সংবেদনশীলভাবে উপস্থাপন, নারীর প্রতি সহিংসতা বিষয়ক প্রতিবেদনে সংবেদনশীল শব্দের ব্যবহার এবং নির্ভরযোগ্য তথ্যের উৎস সম্পর্কে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাম্যক ধারণা দেওয়া। এছাড়াও গণমাধ্যমে সংবাদ এবং অনুষ্ঠানে নারীপুরুষের ভারসাম্যমুলক উপস্থাপনের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) পারভেজ চৌধুরী সাংবাদিকদের জেন্ডার সংবেদনশীল সাংবাদিকতার পক্ষে তাদের সহযোগিতা বাড়ানোর আহ্বান জানান। অসংবেদনশীল রিপোর্টিংয়ের প্রভাবে কিভাবে ভুক্তভোগী নির্যাতনের অভিজ্ঞতা পেতে পারেন তা ব্যাখ্যা করেন এবং এ ব্যাপারে সাংবাদিকদের বিশেষভাবে দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট সাংবাদিকগণ গবেষণা ভিত্তিক সাংবাদিকতার উপর জোর দেন। সংবাদ প্রচার ও রিপোর্টিংয়ের সময় সাংবাদিকদের মুল-ঘটনার পাশাপাশি অপ্রসাঙ্গিক বিষয় নিয়ে রিপোর্ট না করার জন্য অনুরোধ করেন। ভিকটিমদের সুরক্ষার জন্য সাংবাদিকদের সক্রিয় ভুমিকা অবলম্বনের বিষয়েও সভায় আলোচনা হয়। বিশ্বে নারীর প্রতিভার স্বীকৃতি, শান্তিপূর্ণ এবং সমতার বিশ্ব তৈরিতে সাংবাদিকরা যে গুরুত্বপুর্ণ ভুমিকা রাখতে পারে সে বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়।

ওরিয়েন্টেশন সেশনে, ইউএন উইমেনের প্রতিনিধি নাদিরা ইসলাম ও মাহমুদুল করিম জেন্ডার সংবেদনশীল সাংবাদিকতা এবং প্রতিবেদন তৈরির ক্ষেত্রে জেন্ডার সংবেদনশীলতার বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেন। সংলাপ অধিবেশনে সাংবাদিকরা গণমাধ্যমে সংবেদনশীল সাংবাদিকতার প্রয়োজনীয়তা নিয়ে আলোচনা করেন এবং গণমাধ্যমে জেন্ডার সংবেদনশীল সাংবাদিকতা চর্চার উপর বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করেন। সাংবাদিকগণ এধরনের উদ্যোগের প্রশংসা করেন এবং এ বিষয়ে ট্রেনিংয়ের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করে ইউএন উইমেনকে এ বিষয়ে নিয়মিত ট্রেনিং এবং আলোচনা সভা আয়োজনের অনুরোধ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •