প্রেস বিজ্ঞপ্তি
বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা একলাব ও ইউনিসেফ এর আর্থিক সহযোগিতায় উখিয়ায় কোভিড-১৯ সচেতনতামূলক কার্যক্রম ও লকডাউন বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনিুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১৪ জুন) সকালে উখিয়া উপজেলা মিলনায়তনে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন আহমেদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কামরুন্নেছা বেবি।
এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন- প্রকল্পের ডেপুটি প্রোগ্রাম ম্যানেজার সাখাওয়াত আমীন। প্রকল্পের পরিচিতি ও কোভিড-১৯ এর উপর সচেতনতামূলক পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপনা করেন মনিটরিং ও এভালুয়েশন অফিসার মেহজাবিন আলম। শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন উখিয়া উপজেলা জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা ফরিদুল আলম। পরে উন্মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন, সরকারী-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিবৃন্দ।
সহকারী শিক্ষা অফিসার মো. বদরুল আলম বলেন- সরকারী বিভিন্ন সহায়তা যেমন বয়স্ক ভাতা ও প্রতিবন্ধী ভাতা প্রাপ্তির ব্যাপারে একলাব কিভাবে কাজ করছে এবং বিগত তিন মাসে কতজন অসহায় মানুষকে এ সহায়তা নিশ্চিত করা হয়েছে? সেবা প্রদানকারী সংস্থা ও ইউনিয়ন পরিষদের সাথে একলাবের রেফারেল লিংকেজ নেটওয়ার্ক সম্পর্কে ডিপিএম বিস্তারিত উপস্থাপন করেন। এই প্রসংগে মেহজাবিন আলম একটি কেস স্টাডি অংশগ্রহনকারীদের মাঝে উপস্থাপন করেন। উপজেলা প্রানি সম্পদ অফিসার ডা. মোহাম্মদ শাহাবুদ্দিন একলাব কে এর এ ধরনের সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। তিনি বলেন, পাকিস্তানের মত বাংলাদেশেও কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন উদ্ভাবন করা দরকার। বাংলাদেশ কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন তৈরী করা হলে ৯০% মানুষ এই ভ্যাকসিন গ্রহনের সুযোগ পাবে। তখন করোনা মহামারী নি:সন্দেহে সরকারের নিয়ন্ত্রনে আসবে।
উপজেলা সমাজ সেবা অফিসারের প্রতিনিধি একলাবের সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা প্রদানের ক্ষেত্রে একলাবকে সরাসরি উপজেলা পর্যায়ে ইউএনও’র কাছে তালিকা ও যৌক্তিকতা উপস্থাপন করতে অনুরোধ জানালে ইউএনও এ ব্যাপারে সম্মতি প্রদান করেন। এনজিও সমন্বয়কারী হিসাবে ইউএনডিপি এর প্রতিনিধি দেওয়ান জিন্নাহ তার আলোচনায় বলেন- একলাব এর উচিত আরো কাপড়ের মাস্ক উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে বিতরণ করা। এ ব্যাপারে ইউনিসেফের সাথে উপস্থাপন করতে অনুরোধ জানান। উপজেলা সমবায় অফিসার সলিম উল্লাহ বলেন- কোভিড-১৯ মোকাবেলায় সরকারী ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠানকে একসাথে কাজ করতে হবে।
ইউএনও নিজাম উদ্দিন আহমেদ সমাপনী বক্তব্যে বলেন- “বর্তমানে মাস্কই হচ্ছে আমাদের ভ্যাকসিন। তাই আমাদের সকলের সঠিকভাবে মাস্ক ব্যবহার জরুরী। তিনি একলাব এর কাছে কোভিড মোকাবেলায় তিনস্তরের কাপড়ের মাস্ক প্রদানের অনুরোধ জানান। কোভিড মোকাবেলায় মাইকিং, পোষ্টার, লিফলেট এর পাশাপাশি বিলবোর্ড স্থাপনের গুরুত্ব আরোপ করেন। তিনি সরকারের সেফটিনেট প্রোগ্রামের আওতায় বয়স্কভাতা, বিধবাভাতা ও প্রতিবন্ধীভাতা পাবার যোগ্য ব্যক্তিদের প্রস্তাবিত নামের তালিকা আগামীতে উপজেলা কমিটির নিকট প্রেরণের জন্য একলাবকে অনুরোধ জানান। তাছাড়া একলাব, রেডিও নাফ এর সকল কাজের সাথে উপজেলা প্রশাসন সম্পৃক্ত থাকার আগ্রহ প্রকাশ করেন।
মতবিনিময় সভায় উপস্থিত সকলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অংশগ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন প্রকল্পের ডেপুটি প্রোগ্রাম ম্যানেজার সাখাওয়াত আমীন। সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন প্রকল্পের কমিউনিটি এনগেজমেন্ট অফিসার মো. জুলফিকার আলী, আইএসপি নিলুফার ইয়াছমিন ও জিয়া উদ্দিন আহমেদ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •