সিবিএন ডেস্ক:
আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে আছেন ভিকটিম তানজিন তিশা। বিচারকের স্থানে বসে আছেন বিচারক। তার সামনে দুইপাশে বসে বাদী-বিবাদীরা। আইনজীবীর কালো পোশাকে যুক্তিতর্কে রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা! আরও একজন আছেন, তারিন জাহান। তিনি নারী পুলিশ।

এই দৃশ্যগুলো তানিম রহমান অংশুর পরিচালিত টিভি ফিচার ফিল্মের। নাম ‘সাহসিকা’। ১১ জুন থেকে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশনের (বিএফডিসি) ৯ ফ্লোরে শুরু হয়েছে এর শুটিং। যা তৈরি হচ্ছে দীপ্ত টিভির জন্য।

তানিম রহমান অংশু জানান, এটা টিভি ফিচার ফিল্ম। যা টিভি দর্শকদের জন্য তৈরি হচ্ছে। বর্তমান সময়ে আলোচিত ঘটনা থেকেই ছবিটি নির্মাণ হচ্ছে।

গল্প প্রসঙ্গে দীপ্ত টিভি জানায়, কলেজ পড়ুয়া ফারিয়ার প্রথম প্রেম মাহাদি। কিন্তু টিনএইজড এই প্রেমে আঘাত লাগল তখনই, যখন মাহাদির কাছেই তাকে হতে হলো ধর্ষণের শিকার! প্রেম মুছে গেল, থেকে গেল গ্লানি। পরিবার থেকেই শুনতে হলো হাজারটা তিরস্কার, ঘটনাটা ধামাচাপা দিতে চাইলো আপন মানুষগুলোই। ওদিকে মাহাদির পক্ষ থেকেও আসলো হুমকি। আর পাঁচটা সাধারণ মেয়ের মতোই নিজেকে গুটিয়ে নিতে পারত ফারিয়া কিন্তু তা না করে বিচার চাইতে এগিয়ে এলো সাহসী ফারিয়া। আর সেই সাহসের সঙ্গী হলো পুলিশ অফিসার নাদিয়া ও ব্যারিস্টার ফরিদ। আদালতের মঞ্চে চলল ন্যায়-অন্যায়ের আঘাত-পাল্টা আঘাত!

এতে ফারিয়ার ভূমিকায় অভিনয় করছে তানজিন তিশা আর মাহাদির চরিত্রে মনোজ প্রামাণিক। আর পুলিশ অফিসার নাদিয়ার চরিত্রে তারিন ও ব্যরিস্টার ফরিদ হয়েছেন আশীষ খন্দকার। এছাড়াও আসামী পক্ষের আইনজীবির চরিত্রে রয়েছেন মিথিলা। ‘সাহসিকা’র চিত্রনাট্য করেছেন আহমেদ খান হীরক ও নাসিমুল হাসান।

প্রযোজনা সংস্থা আলফা আইয়ের ব্যনারে নির্মিত হচ্ছে টিভি ফিচার ফিল্মটি। আগামী ঈদুল আজহায় দীপ্ত টিভিতে এটি প্রচার হতে পারে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •