আবুল কালাম, চট্টগ্রাম:
চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের সোনাইছড়ি ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের কদমরসুল কেশবপুর গ্রামের জহুর আলম মেম্বারের ভাড়া বাসা থেকে সোনিয়া আকতার (২৬) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশের ধারণা গৃহবধূকে হত্যা করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার (১০ জুন) গৃহবধূর লাশটি উদ্ধার করা হয়।

এএসপি সীতাকুণ্ড সার্কেল আশরাফুল করিম এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধারের কথা নিশ্চিত করে বলেন, আনুমানিক ২৬ বছর বয়সী ওই গৃহবধূর স্বামীর নাম আবুজার গিফারী। দরজার তালা ভেঙে লাশটি উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে স্বামী তার স্ত্রীকে হত্যা করেছে। লাশ উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে জানা যাবে তাকে কিভাবে হত্যা করেছে।

এব্যাপারে মামলা প্রক্রিয়াধীন জানিয়ে ওসি তদন্ত জানান, দূর থেকে লাশ দেখে যেটা বুঝা গেছে, হত্যার আগে তার সাথে ধস্তাধস্তি হয়েছে। গলায় আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে। ময়নাতদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে।

ঘটনার পর থেকে স্বামী গিফারী পলাতক রয়েছে বলে তিনি জানান। স্থানীয় ও মেয়ের বাবা সাবিউল আলমের বরাদ দিয়ে তিনি জানান, গিফারীর সাথে আটমাস আগে সোনিয়ার বিয়ে হয়। গত ৮ জুন তারা স্বামী-স্ত্রী দুইজনই গ্রামের বাড়িতে গিয়ে সোনিয়ার অসুস্থতার জন্য মেডিকেলে ভর্তি হবে বলে ১০ হাজার টাকা নিয়ে আসে। তারপর থেকে তাদের সাথে আর যোগাযোগ হয় নি। আজ সকালে জানতে পারেন তাকে হত্যা করা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •