ফেসবুক কর্ণার:
সেলা নদী। পূর্ব সুন্দরবনের ভয়ঙ্কর সুন্দর এক নদী। কুমিরের বিচরণের জন্য বেশ নাম আছে নদীটির। মংলার জয়মনিরঘোল থেকে শুরু। পশুর নদী থেকে পূর্ব দিকে বেরিয়ে শেষ হয়েছে বঙ্গোপসাগরে।
২০১৬ সালের আগস্ট বাবা সেপ্টেম্বর। আন্ধারমানিক খালের কাছে ছোট্ট একটি খালে দেখা হয়েছিলো বনদস্যু শান্ত বাহিনীর সঙ্গে। বাহিনী প্রধান বারেক তালুকদারের বাড়ি মোড়েলগঞ্জে। ঠান্ডা প্রকৃতির মানুষটি ঘুরিয়ে ফিরিয়ে বলছিলেন জেলেরা তাঁকে খুব ভালোবাসে। আমি বললাম, তাহলে হাতে অস্ত্র রাখার দরকার কী? দস্যুনেতা হেসে বললেন, অস্ত্র না থাকলে জেলেরা পিটিয়ে মেরে ফেলবে! আমি বললাম জেলেরা তাহলে বাধ্য হয়ে ভালোবাসে আপনাকে।
গল্প-গুজব চলঠিলো। হঠাৎ স্পিডবোটের শব্দ। বড় নদী ধরে এখন স্পিডবোট আসার কথা না। তাই ধরেই নিলাম যে আমাদের খবর জেনে গেছে কোস্টগার্ড।
স্পিডবোট অনেক কারণেই নামতে পারে সুন্দরবনে। কিন্তু বনদস্যুদের সঙ্গে থাকার সময় ধরেই নিতে হয় যে প্রশাসনের লক্ষ্য আমরা। তাই দেরি না করে নৌকা থেকে নেমে পড়লাম জঙ্গলে। দ্রুত জঙ্গল ভেঙ্গে এগিয়ে গেলাম গভীর বনে। মনে পড়ে, পা দুটোতে সেবার অনেকগুলো কাঁটা ঢুকেছিলো।
স্পিডবোটটি অতিক্রম করার আগ পর্যন্ত আমরা জঙ্গলেই লুকিয়ে থাকলাম, চুপচাপ।

Mohsin ul Hakim -এর ফেসবুক টাইমলাইন থেকে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •