অনলাইন ডেস্ক: যদি ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধির রাশ টেনে ধরা না যায়, তবে ‘কয়েক সপ্তাহের মধ্যে’ ইরান পারমাণবিক বোমা বানিয়ে ফেলতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিঙ্কেন এ সতর্কবার্তা দেন। খবর আরব নিউজের।

তেহরান এবং বিশ্ব শক্তিগুলো ২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তি বাঁচানোর চেষ্টার মধ্যে জাতিসংঘের পারমাণবিক নজরদারি সংস্থার প্রধান বলেছেন, ইরানের পারমাণবিক স্থাপনাগুলো পরিদর্শন করার জন্য একটি অস্থায়ী ব্যবস্থার মেয়াদ বাড়ানো ‘ক্রমশ কঠিন হয়ে উঠছে’।

এ চুক্তিতে আন্তর্জাতিক পরিসরে নিষেধাজ্ঞার হাত থেকে ইরানকে রক্ষা করার কথা বলে হয়েছে। পাশাপাশি ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচির লাগাম টেনে ধরার সুযোগ পেয়েছিল বিশ্ব শক্তিগুলো। কিন্তু ২০১৮ সালে যুক্তরাষ্ট্র নিজেকে প্রত্যাহার করে নেওয়ার পর থেকে কার্যত এ চুক্তি ‘মৃত’। এর পর ট্রাম্প ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ শুরু করেন। পাল্টা পদক্ষেপ হিসেবে ইরানও চুক্তি মানা বন্ধ করে দেয় এবং ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করা বাড়িয়ে দেয়।

পরিপ্রেক্ষিতে অ্যান্থনি ব্লিঙ্কেন বলেন, চুক্তিতে ফেরার জন্য যা যা করা দরকার তা করতে ইরান প্রস্তুত কিনা তা এখনও অস্পষ্ট। ইতোমধ্যে দেশটির পরমাণু কর্মসূচি দ্রুত এগিয়ে চলছে। এভাবে চলতে থাকলে কয়েক সপ্তাহের মধ্যে তারা পরমাণু অস্ত্র তৈরি করতে সক্ষম হবে।

ভিয়েনায় পরমাণু চুক্তি নিয়ে ইরানের সঙ্গে অংশীদাররা আলোচনা করছে। ২ জুন পঞ্চম দফার আলোচনার পরও কোনো ধরনের সমাধান মেলেনি। এখন ষষ্ঠ দফার আলোচনার অপেক্ষা করছে উভয়পক্ষ। ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ১৮ জুন। ভোটে জিতে কট্টর কেউ প্রেসিডেন্ট হয়ে এলে পরিস্থিতি আরও ঘোলাটে হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা উড়িয়ে দিচ্ছেন না বিশেষজ্ঞরা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •