মোঃ নিজাম উদ্দিন, চকরিয়া:
চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীতে চাষি জমি ও নির্মাণাধীন বসতঘর জবরদখল চেষ্টা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। উত্তর ফুলছড়ি এলাকার মৃত মাষ্টার আহমদ খাইরের ছেলে নুরুল ইসলাম হেলালী ও তার নেতৃত্বে সন্ত্রাসী বাহিনী এ জবরদখল চেষ্টা চালাচ্ছে বলে জানায় ভুক্তভোগী পরিবার।
অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, খুটাখালী উত্তর ফুলছড়ি মৌজার ৩নং সিটের, ২৯৪ নং বিএস খতিয়ানভুক্ত ৩২৬৮ দাগের ৪০ শতক জমির মালিক আবদুল হামিদ গং। বিগত ১৯৮৯ সনে তার পিতা মৃত হাজী ছিদ্দিক আহমদ ও চাচা মোহাম্মদ কালু তৎকালীন জমিদার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের রফিকুল আলম চৌধুরী, শাহাবুদ্দিন চৌধুরী ও লুৎফর নেছা থেকে রেজিস্ট্রি মূলে ক্রয় করেন। এরপর থেকে পৈত্রিক জমিগুলো হাব্দুল হামিদ গংরা শান্তিপূর্ণ ভাবে ভেগদখল করে আসছে।
পক্ষান্তরে অভিযুক্ত নুরুল ইসলাম হেলালি গং মুল ওয়ারিশদের অজান্তে এসব জমি খাস উল্লেখ করে স্থানীয় জেলে সম্প্রদায়কে বেচা বিক্রির নামে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। নিরীহ জেলে সম্প্রদায়ের সরলতার সুযোগ নিয়ে তিনি এ পর্যন্ত ৮ পরিবার থেকে অন্তত ১০-১৫ লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।
ভুক্তভোগী আরো জানান, গত রবিবার (৬ জুন) তারিখে আব্দুল হামিদ তার দলিল পত্র মূলে নিজস্ব জমিতে টিনের ঘেরা-বেড়া দিয়ে একটি বসতঘর নির্মাণ করছিলেন। এমতাবস্থায় অভিযুক্ত নুরুল ইসলাম হেলালীর নেতৃত্ব লোহার তৈরি অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে একদল সন্ত্রাসী বাহিনী বাধা প্রদান করে। এসময় উভয় পক্ষের সংঘর্ষের আশংকা দেখা দিলে স্থানীয় পূর্ব পাড়ার বাসিন্দা ফখরুল ইসলাম ও মাষ্টার বশির আহমদ কাগজপত্র দেখে আপোষ মিমাংসার আস্বস্ত করলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।
বর্তমানে কোন প্রকার স্বত্ব না থেকেও নুরুল ইসলাম হেলালি ও তার বাহিনী আব্দুল হামিদের নির্মাণাধীন টিনের ঘরটি দখলে নিতে চেষ্টা চালাচ্ছে। এমনকি তাকে ও তার পরিবারকে গোপনে বা প্রকাশ্যে মারবে-কাটবে, মিথ্যা মামলায় জড়াবে বলে হুমকিধামকি দিয়ে আসছে। এতে আব্দুল হামিদ ও তার পরিবার পরিজন নিয়ে জান মালের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত নুরুল ইসলাম হেলালির সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে আব্দুল হামিদের দলিলপত্র ঠিক আছে বলেও জানান। তিনি বলেন, ও-ই জমি নিয়ে সরকারের সাথে আমাদের মামলা চলমান আছে। মামলা নিষ্পত্তি না হওয়ার আগে জবরদখল চেষ্টার কারণ জানতে চাইলে তিনি কোন সদুত্তর দিতে পারেন নি।
এ বিষয়ে খুটাখালী ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বার ওয়াসিম আকরাম বলেন, বিরোধীয় ও-ই জমিতে নুরুল ইসলাম হেলালি গংদের কোনপ্রকার স্বত্ব নেই। তারা জোরপূর্বক ক্রয় ও ওয়ারিশসুত্রে মালিকদের খতিয়ানভুক্ত জমির জবরদখল চেষ্টা চালাচ্ছে। এনিয়ে আমি ভুক্তভোগী পরিবারকে আইনগত ব্যবস্থা নিতে জানিয়ে দিয়েছি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •