সোয়েব সাঈদ, রামু
রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণয় চাকমা বলেছেন-দেশের বিশাল জনগোষ্ঠির চাহিদা পূরণে প্রাণিসম্পদ বৃদ্ধিতে প্রান্তিক কৃষক ও খামার মালিকদের এগিয়ে আসতে হবে। বৈজ্ঞানিক পদ্ধতি অবলম্বন করে উন্নত প্রজাতির পশু ও হাঁস-মুরগী পালনের মাধ্যমে এ লক্ষ্য পূরণ সম্ভব হবে। এজন্য সরকারের পক্ষ থেকে সকল ধরনের সহযোগিতা দেয়া হচ্ছে।
রামুতে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী ২০২১ উপলক্ষ্যে আয়োজিত আলোচনা সভা, পুরস্কার ও সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে ইউএনও প্রণয় চাকমা একথা বলেন। “পুষ্টি, মেধা, দারিদ্র বিমোচন-প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনীর আয়োজন” এ প্রতিপাদ্যে প্রাণীসম্পদ ও ডেইরী উন্নয়ন প্রকল্প (এলডিডিপি) এবং প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় রামু উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারি হাসপাতালের উদ্যোগে এ প্রদর্শনীর আয়োজন করে।
শনিবার (৫ জুন) রামু খিজারী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রদর্শনী উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন-রামু উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফসানা জেসমিন পপি, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. সালাহ উদ্দিন এবং রামু উপজেলা ডেইরী এসোসিয়েশনের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মোজাফ্ফর আহমদ।
এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন-উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ও প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী ২০২১ বাস্তবায়ন কমিটির সদস্য সচিব ডা. রুপেন চাকমা। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন- প্রাণিসম্পদ দপ্তরের উপ-সহকারি কর্মকর্তা আবদুল মোতালেব।
প্রদর্শনীতে প্যানেল বিচারকমন্ডলী ৩টি ক্যাটাগরী যথাক্রমে ১. গাভী/ষাড়/বকনা/মহিষ, ২. বাছুর/ছাগল/ভেড়া, ৩. হাঁস/মুরগী/অন্যান্য পাখি এর উপর ১ম, ২য়, ৩য় স্থান বিজয়ী নির্বাচন করেন। অনুষ্ঠানে বিজয়ী ৯জন এবং বিশেষ পুরস্কারপ্রাপ্ত ১ জন সহ মোট ১০ জন খামারীকে আকর্ষণীয় পুরস্কার এবং সনদপত্র বিতরণ করা হয়।
প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী-২০২১ বাস্তবায়নে উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের উপ-সহকারি কর্মকর্তা সুজিত কুমার নাথ, সুভাষ দে, নাছির আহমদ, হাম্মাদ মিয়া, অফিস সহকারি মনতোষ সাহা, এলএফএ দীনবন্ধু রায়, মজনু শেখ ছাড়াও এলএসপি, এআই টেকনেশিয়ানগণ সার্বিক দায়িত্ব পালন করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •