মো. নুরুল করিম আরমান, লামা:
বান্দরবান জেলার লামা পৌরসভা এলাকার চাম্পাতলী গ্রমের প্রবাসীর স্ত্রী ও দুই কন্যা হত্যা মামলার তদন্তের দায়ত্বিভার পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনে (পিবিআই) হস্থান্তর করা হয়েছে। মামলার বাদী নিহত মাজেদা বেগমের মা লালমতি বেগমের আবেদনের প্রেক্ষিতে তদন্তের দায়িত্ব ভার পিবিআই’কে দেন বিজ্ঞ আদালত।

মামলার বাদী লালমতি বেগম লামা উপজেলা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে করা আবেদনে উল্লেখ করেন, গত ২০ মে রাতে তার মেয়ে মাজেদা বেগম সহ দুই নাতনি দুর্বৃত্তের হাতে খুন হন। এই বিষয়ে আইনী প্রতিকার চেয়ে তিনি বাদী হয়ে লামা থানায় (জি.আর.-৫৭/২১, ধারায় লামা থানার মামলা নং-০৮, তাং ২২/ ০৫/ ২১ইং) একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। থানার অফিসার ইনচার্জ মামলার তদন্তের ভার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত ) কে হস্থান্তর করেন। তদন্তকারী কর্মকর্তা তদন্তকার্য যথাযথভাবে পালন করতে ব্যর্থ হওয়ায় পিবিআই কক্সবাজার/সিআইডি বান্দরবানকে হস্তান্তরের দাবী জানান বাদী লালমতি বেগম। তিনি আবেদনে আরো উল্লেখ করেন বলেন, ইতিমধ্যে এ ঘটনায় তদন্তকারী কর্মকর্তা যাদের আটক করে রিমান্ডে নিয়েছেন তাদের কাছ থেকে কোন আশাপ্রদ ক্লু উৎঘাটন করতে পারেননি। এছাড়া হত্যা মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ২৭ জনকে আটক করা হয় এবং তাদের মধ্যে তিনজনকে তিনদিন করে রিমান্ডে নিলেও ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি নেন নি। বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে তিনজন আসামীকে রিমান্ডে নিয়ে তথ্য উদ্ধারেও ব্যর্থ হন তদন্তকারী কর্মকর্তা অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) মোহাম্মদ আলমগীর। পরে বৃহস্পতিবার বিজ্ঞ আদালতের বিচারক বাদীর আবেদনটি আমলে নিয়ে পিবিআই, কক্সবাজারকে তদন্তের দায়িত্ব হস্তান্তরের আদেশ প্রদান করেন।

চাঞ্চল্যকর তিন হত্যা মামলার তদন্তভার কক্সবাজার পিবিআই’কে হস্তান্তরের সত্যতা লামা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মিজানুর রহমান নিশ্চিত করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •