সাঈদী আকবর ফয়সাল, চকরিয়া:
স্থগিত হওয়া চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনের তারিখ পুনরায় ঘোষণার পর থেকে ভোটারদের বাসা-বাড়ি, চায়ের দোকান ও বিভিন্ন মহল্লায় চষে বেড়াচ্ছেন মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা।

পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে আনন্দ মিছিল শুরু করেছেন মেয়র ও কাউন্সিলর সমর্থকরা। বুধবার (২ জুন) নির্বাচন কমিশন সভা শেষে সাংবাদিকদের নির্বাচনের তারিখের বিষয়ে জানান, নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হুমায়ুন কবির খোন্দকার।

এদিকে দীর্ঘদিন পরে পুনরায় (২১জুন) তারিখ ঘোষণার পর সাধারণ ভোটারদের মাঝে লক্ষ্য করা গেছে চাঙ্গাভাব।

সরেজমিন দেখা গেছে, বৃহস্পতিবার (৩ জুন) পৌরসভার মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকরা অলিগলিতে ছোট ছোট মিছিল করে ভোট শুরুর কথা জানান দিচ্ছে ভোটারদের। চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে ৪ প্রার্থী, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৪ জন ও ৯ ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৫৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

মেয়র পদে ৪ প্রার্থী হলেন, আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতিক নিয়ে বর্তমান মেয়র আলমগীর চৌধুরী, স্বতন্ত্র প্রার্থী কাউন্সিলর জিয়াবুল হক, জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতিক নিয়ে মনোয়ার আলম ও সাবেক ছাত্র নেতা এডভোকেট ফয়সাল সিদ্দিকী ।

জানা গেছে, মেয়র ও চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন হবে দলীয় প্রতীকে। এর মধ্যে চকরিয়া ও মহেশখালী পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ইভিএমে। সর্বশেষ ২০১৬ সালের মার্চ থেকে জুন পর্যন্ত ছয় ধাপে চার হাজার ৩২১টিতে ভোট হয়। এর মধ্যে ওই বছরের ২২ মার্চ প্রথম ধাপে ৭৫২টি ও একই বছরের ৩১ মার্চ দ্বিতীয় ধাপে ৬৮৪ ইউনিয়ন পরিষদে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

প্রসঙ্গত, গত ১১ এপ্রিল ইভিএম এর মাধ্যমে চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হলে ৪ এপ্রিল নির্বাচন কমিশন ১১ পৌরসভা ও ৩৭১ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করেন।

চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা সৈয়দ শামসুল তাবরীজ বলেন, পুনরায় তারিখ ঘোষণার পর থেকে প্রার্থীরা বিধি মোতাবেক নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করতে পারবেন। আগামী ২১ জুন নির্বাচনের প্রস্তুতি রয়েছে বলেও তিনি জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •