ইমাম খাইর, সিবিএন:

শরীর মন পরস্পরের পরিপূরক। বিশ্বজুড়ে প্রায় ৫০ কোটি মানুষ এখন নিয়মিত মেডিটেশন করে। প্রাচ্য বিশ্বকে যত জ্ঞান ও প্রযুক্তি উপহার দিয়েছে তার মধ্যে সর্বশ্রেষ্ট উপহার হচ্ছে মেডিটেশন। স্ট্রেস বা মানসিক চাপে আক্লান্ত একজন মানুষ যখন মেডিটেশন করে তখন তার স্ট্রেসের মাত্রা কমে যায় শতকরা ৬০ ভাগ। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি অন্তত ৮৭ শতাংশ কমে গেছে যখন তারা মেডিটেশন করেছেন। শতকরা ৯১ ভাগ মানুয় এই মেডিটেশন করে বাদ দিতে পেরেছেন ঘুমের ওষুধ বা স্লিপিং পিল খাওয়া।

কক্সবাজারে বিশ্ব মেডিটেশন দিবসের সভায় কক্সবাজার অঞ্চলের অর্গানিয়ার মোহাম্মদ শরীফ নেওয়াজ কথাগুলো বলেছেন।

বুধবার (২ জুন) বিকালে সমুদ্র সৈকতের কবিতা চত্বর পয়েন্টে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন কক্সবাজারের অনুষ্ঠানে তিনি বলেছেন, আধুনিক ব্যস্ত জীবনে স্ট্রেস হতাশা বিষন্নতা উদ্যমহীনতা কাটিয়ে উঠে সফল ও পরিতৃপ্ত জীবনের জন্যে মেডিটেশনের কোন বিকল্প নেই। এই উপলব্ধি থেকেই পশ্চিমা বিশ্বে এখন জোয়ার উঠেছে মেডিটেশন ভিত্তিক র্কাযক্রমের । এমআইটি, অক্সর্ফোড, হার্ভার্ড , ইয়েল , ষ্ট্যানর্ফোডের মতো বিশ্বসেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে বিভিন্ন নামে চালূ হয়েছে মেডিটেশন ভিত্তিক হ্যাপিনেস কারিকুলাম।

কোয়ান্টাম মেথডের উদ্ভাবক ও প্রশিক্ষক শহীদ আল বোখারীর এক অডিও শুভেচ্ছা র্বাতা ও মেডিটেশনের মধ্য দিয়ে অর্ধশত মানুষের অংশগ্রহণে মেডিটেশন দিবসের অনুষ্ঠান শুরু হয়।

লেখক ও প্রযুক্তিবীদ তন্ময় আহমদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সমাজের বিভিন্ন পেশার মানুষের স্বত:র্ষ্ফূত অংশগ্রহণ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •