কফিল উদ্দিন রামু :

রামুর অন্যতম শীর্ষ সন্ত্রাসী ৭ টি মামলার আসামী সাদ্দাম হোসেন প্রকাশ মুনিয়াকে আটক করেছে রামু থানা পুলিশ। আটককৃত সাদ্দাম হোসেন মুনিয়া রামুর পুর্ব মেরংলোয়া গ্রামের মৃত আমির হোসেনের ছেলে। তার বিরুদ্ধে হত্যা,ধর্ষণ,ছিনতাই সহ বিভিন্ন অপরাধের ০৭ টি মামলা রয়েছে।

২ জুন বুধবার দুপুর আনুমানিক সময় ২:১৫ মিনিটের সময় রামু থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই কামরুল ইসলামের নেতৃত্বে রামু থানা পুলিশের একটি টিম দীর্ঘ ঘন্টা অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।

জানা যায়, গেল ২৯ মে দিবাগত রাতে রামু চৌমুহনী স্টেশনে এক কাটমিস্ত্রিকে ছিনতাই ও ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। সে হিসাবে গত ৩০ মে রামু থানার তার বিরুদ্ধে সর্বশেষ মামলা রুজু হয়। সর্বশেষ মামলা রুজু হওয়ার পরক্ষনেই রামু থানা পুলিশ জোরদার অভিযান পরিচালনা করে আসছিল।সর্বশেষ গোপন সংবাদের উপর ভিত্তি করে ২ জুন প্রায় ২ ঘন্টার অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে রামু থানা পুলিশের একটি চৌকষ টিম।

এবিষয়ে অভিযান পরিচালনার নেতৃত্ব দেওয়া রামু থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই কামরুল ইসলাম জানান, ওসি তদন্ত স্যারের নির্দেশে আমরা আজ দুপুরে অভিযান পরিচালনা করি। এবং দীর্ঘক্ষণ অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করতে সক্ষম হই।  তার বিরুদ্ধে হত্যা,ধর্ষণ,ছিনতাই সহ বিভিন্ন অপরাধের ৭ টি মামলা রয়েছে। পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ গ্রহনের জন্য আমরা তাকে আগামীকাল আদালতের কাছে হস্তান্তর করব।

এদিকে সাদ্দাম হোসেন মুনিয়া প্রকাশ সন্ত্রাসী মুনিয়া আটক হওয়ার সংবাদে রামু এলাকার খুশির জোয়ার বইছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •