সিবিএন ডেস্ক:

নিউইয়র্কে বাঙালী অধ্যুষিত ব্রঙ্কসে বাংলাদেশীদের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বিশাল সমাবেশ-র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। স্টারলিং-বাংলাবাজার এলাকায় গত ৩১ মে সোমবার বিকেলে সম্মিলিত যুব সমাজ এর ব্যানারে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। র‌্যালিতে দল-মত নির্বিশেষে বিপুল সংখ্যক প্রবাসী যোগ দেন। সমাবেশে বর্ণবৈষম্য হামলাসহ ছিনতাই, সন্ত্রাসী কার্যকলাপ বন্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানান হয়। পওে একটি বিশাল র‌্যালি স্টারলিং বাংলাবাজার এলাকা প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালি থেকে সন্ত্রাসী হামলার বিরুদ্ধে বিভিন্ন শ্লোগান দেয়া হয়। র‌্যালিতে বর্ণবৈষম্য হামলা বিরোধী বিভিন্ন শ্লোগান সম্বলিত লেখা প্ল্যা কার্ড বহন করা হয়। খবর ইউএসএনিউজঅনলাইন’র।

যুব নেতা রেজা আবদুল্লাহ স্বপনের পরিচালনায় এবং মো: সেলিম রেজার সভাপতিত্বে এ বিক্ষোভ র‌্যালিতে অতি সম্প্রতি সন্ত্রাসী হামলার শিকার হওয়া আশিক মাহমুদ তার ওপর হামলা ঘটনার বিবরন তুলে ধরেন। এ সময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিলে আসন্ন ডেমোক্র্যাটিক প্রাইমারী নিবার্চনে ডিস্ট্রিক্ট ১৮ (ব্রঙ্কস) এর কাউন্সিলম্যান প্রার্থী মোহাম্মদ এন মজুমদার ও মির্জা মামুনুর রশীদ, বাঙালি চেতনা মঞ্চের সভাপতি আব্দুর রহিম বাদশা, আমেরিকান-বাংলাদেশী ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন ইনক’র সভাপতি আব্দুস সহিদ, মুক্তিযোদ্ধা তোফায়েল চৌধুরী, আমেরিকান-বাংলাদেশী ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন ইনক’র সাধারণ সম্পাদক শেখ জামাল হুসেন, ব্যান্ডস’র সাধারণ সম্পাদক মো. শামীম মিয়া, নিউইয়র্ক সিটি ট্রানজিট ইউনিয়ন লোকাল ১০০ এর ভাইস চেয়ারম্যান সাইম মোনতাকিম, ব্রঙ্কস বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কাজী রবিউজ্জামান, সাবেক সভাপতি এন ইসলাম মামুন, প্রবাসী বরিশাল বিভাগীয় কল্যাণ সমিতি ইউএসএ’র সাধারণ সম্পাদক মো: রুহুল আমিন নাসির, কমিউনিটি এক্টিভিস্ট নাছির উদ্দীন, নুরুল ইসলাম, সাদিকুর রহমান, কামরুজামান শামীম প্রমুখ।
সমাবেশে কমিউনিটি এক্টিভিস্ট হাজী খবির উদ্দীন, চিনু চেয়ারম্যান, রবিউল ইসলাম কমিশনার, রনজু, মামুন সরকার, হুমায়ূন কবির, শিপু চৌধুরী, জুয়েল আহমেদ সহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
বক্তারা বেশ কটি হামলার ঘটনা উল্লেখ করে বলেন, ব্রঙ্কসে কমিউনিটির সাধারণ লোকজন বিভিন্নভাবে সহিংসতার শিকার হচ্ছেন। পথচারীর ওপর আঘাত-হামলা, ক্যাব চালকের উপর হামলা, গাড়ি চুরি, গাড়ীর হুইল চুরি, গ্লাস ভাংচুরের ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে। এসব ঘটনায় পুলিশে অভিযোগেও খুব একটা কাজে আসছেনা বলে জানান তারা।
সমাবেশে উপস্থিত পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছে, নিউইয়র্ক পুলিশ ডিপার্টমেন্ট হামলাকারীদের গ্রেফতারে তৎপর রয়েছে। বিভিন্ন এলাকায় বিশেষ টহল বাড়ানো হয়েছে। কোন ঘটনা ঘটলে সঙ্গে সঙ্গে পুলিশকে জানাতে পরামর্শ দেয়া হয় সমাবশে থেকে।
উল্লেখ্য, নিউইয়র্কে চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আশিক মাহমুদ গত ২১শে মেরাতে ম্যানহাটানের কর্মস্থল থেকে বাসায় ফেরার পথে ব্রঙ্কসের ক্যাসেল হিল এলাকায় দুর্বৃত্তদের হামলায় মারাত্মকভাবে জখম হন।

এছাড়া, ব্রঙ্কসে বাংলাদেশী উবার চালক মো. আসাদ উজ জামান রিপন গত ২৩ শে মে রাতে ব্রঙ্কসের ২০৭ স্ট্রিট এবং ডিকেটর এলাকায় অতর্কিত হামলার শিকার হন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •