এম.জুবাইদ,পেকুয়া:

কক্সবাজারের পেকুয়ায় তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে লবণ চাষী মাহমুদুল হক (৫২) ও তার ভাতিজি আয়েশা ছিদ্দিকা (১৪) কে পিটিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন।

মঙ্গলবার (১জুন) সকাল ১০ টার দিকে উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের মাতবর পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত মাহমুদুল হক একই এলাকার মৃত আব্দুর রশিদের ছেলে ও আয়েশা ছিদ্দিকা আজিজুল হকের মেয়ে। আয়েশা ছিদ্দিকা রাজাখালী ফয়েজুন্নেছা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী।

লবণ চাষী মাহমুদুল হক বলেন, আমি পেশায় একজন লবণ চাষী। গতরাতে বৃষ্টি আসার সম্ভাবনা দেখে আমার লবণ মাঠের প্রায় ১শ ৫টি কাগজ লবণ সহ গুটিয়ে ফেলি। পরে একই এলাকার জিকির আলম, গোলাম মোস্তাফা, আব্বাস মিয়া, ফিরোজ আহমদ, আবুল কালাম ও সাইফুল ইসলাম এসব কাগজের ৫১টি লবণসহ পূর্ব পরিকল্পিতভাবে চুরি করে নিয়ে যায়। অপর কাগজ গুলো কেটে দেয়। সকালে খবর পেয়ে লবণ মাঠের কাগজ চুরির প্রতিবাদ জানাতে গেলে অপরাধীরা সংঘবদ্ধ হয়ে আমাকে কিরিচ নিয়ে ধাওয়া দেয়। এসময় তারা আমাকে ধরে মারধর করে। পরে আমার চিৎকারে আমার ভাতিজি আয়েশা ঘর থেকে বের হয়ে আমাকে উদ্ধারের চেষ্টা করে। তখন হামলাকারীরা তাকে প্রচণ্ড মারধর করে। পরে স্থানীয়রা আমাদের দু’জনকে উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

এব্যাপারে পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, লিখিত অভিযোগ পেলে দোষীদের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •