এম.জুবাইদ, পেকুয়া:
কক্সবাজারের পেকুয়ায় যুব ও ক্রীড়া মন্রণালয়ের বাস্তবায়নে ও উপজেলা প্রশাসন কতৃক আয়োজিত জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট অনূর্ধ্ব ১৭ এর ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

৩১ মে বিকাল ৩ টায় শহীদ জিয়াউর রহমান উপকূলীয় কলেজ মাঠে স্বাস্থ্য বিধি মেনে অনুুুষ্ঠিত হয়। উক্ত ফাইনাল খেলায় শীলখালী ইউনিয়ন খেলোয়াড় একাদশ বনাম রাজাখালী ইউনিয়ন খেলোয়াড় একাদশ এর মধ্যে মুখোমুখি হয়।

খেলার প্রথমর্ধ্বে আক্রমন পাল্টা আক্রমনের মধ্যে দিয়ে উভয় দলের খেলোয়াড়রা খেলার নৈপুণ্য দেখিয়ে দর্শকদের আনন্দে মেতে তুলে। প্রথমধের্ব নির্ধারিত ৩০ মিনিটে কোন দল তাদের সেই কাঙ্ক্ষিত গোল করতে পারেনি।
২য়র্ধ্বের খেলায়ও উভয়দল আক্রমন পাল্টা আক্রমনের মধ্যে দিয়ে উভয় দলের খেলোয়াড়রা খেলার নৈপুণ্য দেখিয়ে দর্শকদের আনন্দে মেতে তুলে। ২য়ধের্বর নির্ধারিত ৩০ মিনিটে কোন দল তাদের সেই কাঙ্ক্ষিত গোল করতে পারেনি। খেলায় মিমাংসায় নিতে আরো ১০ মিনিট সময় বর্ধিত করে। সেই বর্ধিত সময়েও উভয়দল তাদের নৈপুণ্য হারায়নি নৈপুণ্যতা দেখিয়ে দর্শকদেরকে মাতিয়ে তুলে এবং কোন দলই তাদের সেই কাঙ্ক্ষিত গোল করতে পারেনি। ফলে খেলা ট্রাইবেকারে গড়ায়।

ট্রাইবেকারে শীলখালী ইউনিয়নের খেলােয়াড়রা ৫-৪ গোলে রাজাখালী ইউনিয়ন খেলোয়াড় একাদশ কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন অর্জন করেন।

চকরিয়া-পেকুয়ার সাংসদ আলহাজ্ব জাফর আলম উক্ত খেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে খেলার শুভ উদ্বোধন করেন।
খেলা শেষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোতাছেম বিল্যাহ’র সভাপতিত্বে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান উম্মে কুলসুম মিনু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক আবু হেনা মোস্তফা কামাল চৌধুরী, সদস্য সচিব আবুল কাশেম, পেকুয়া থানার ওসি তদন্ত কানন সরকার, রাজাখালী ইউপি চেয়ারম্যান ছৈয়দ নুর, সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম, উপজেলা শ্রমিকলীগ সেক্রেটারী এস এম শাহাদত, উপজেলা কৃষকলীগের আহবায়ক মেহের আলীসহ ইউপি সচিবগণ। অতিথিরা বিজয়ীদের হাতে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি তুলে দেন।
এ সময় অতিথিরা খেলোয়াড়দের উদ্দেশ্য বলেন খেলাধুলা যুবসমাজকে মাদক ও অপরাধ কর্মকান্ড থেকে দুরে রাখে। গ্রামীণ জনপথে পড়ে থাকা অনেক প্রতিভাবান খেলোয়াড়দেরকে সম্বনয় করে জাতীয় টিমে খেলার সুযোগ করাই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল সেটি বাস্তবায়নের জন্য বর্তমান প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •