সিবিএন ডেস্ক:
ইসরায়েলের ইতিহাসে সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুকে বিদায় করতে তার বিরোধীরা একটি জোট সরকার গঠন করতে যাচ্ছে। এ সরকার গঠিত হলে নেতানিয়াহুর প্রধানমন্ত্রীত্বের অবসান ঘটবে। খবর : বিবিসি।

দেশটির কট্টোর জাতীয়তাবাদী নেতা নাফতালি বেনেট বলেছেন, তার দল সেন্ট্রিস্ট পার্টির নেতা জাইর লাপিদের সঙ্গে একটি কোয়ালিশন সরকার গঠনের আলোচনায় যোগ দেবে।

৪৯ বছর বয়সী জামিনা পার্টির নেতা বেনেট টেলিভিশনে দেয়া একটি ভাষণে এ ঘোষণা দেন।

প্রস্তাবিত এই চুক্তির বিষয়ে নেতানিয়াহু বলেছেন, ‘এটি ইসরায়েলকে দুর্বল করবে।’

দুর্নীতির অভিযোগে দেশটির আদালতে নেতানিয়াহুর বিচার চলছে। গত মার্চে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে তিনি সরকার গঠনের মতো সংখ্যাগরিষ্ঠতা ধরে রাখতে ব্যর্থ হন।

ওই টেলিভিশন ভাষণে বেনেট বলেন, ‘আমি আমার বন্ধু জাইরের সাথে মিলে একটি জাতীয় জোট সরকার গঠন করতে প্রয়োজনীয় সবকিছুই করব।’

এই ঘোষণার আগে ইসরায়েলি মিডিয়াগুলো জানায়, প্রস্তাবিত ওই চুক্তি অনুযায়ী, নেতানিয়াহুর পরিবর্তে বেনেট এখন প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেবেন। এরপর একটি নির্দিষ্ট সময় পার হলে প্রধানমন্ত্রী হবেন জাইর। তবে এ চুক্তির বিষয়টি এখনও কোনো পক্ষই আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করেনি।

প্রস্তাবিত এই চুক্তি দেশটির ডান-বাম ও মধ্যমপন্থী রাজনীতিকদের একটি অংশকে এক জায়গায় নিয়ে আসবে। যদিও এই দলগুলোর মধ্যে রাজনৈতিকভাবে খুব কমই মিল রয়েছে। তবে সবার মধ্যেই নেতানিয়াহুকে অফিস ছাড়া করার ব্যাপারে প্রবল আগ্রহ রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •