প্রেস বিজ্ঞপ্তি :
বিএনপি’র জাতীয় নির্বাহী মৎস্যজীবি বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য লুৎফুর রহমান কাজল বলেছেন, শহীদ জিয়া শুধু একজন মানুষের নাম নয়, একটি ইতিহাসের নামও। মৃত্যুঞ্জয়ী জিয়া ৭১ এ স্বাধীনতার ঘোষণা না দিলে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের ইতিহাস হয়ত অন্যরকম হয়ে যেত। শুধু তাই নয় তাঁর জীবন ও কর্ম পর্যালোচনা করলে দেখা যাবে তিনি শুধু এক বীর মুক্তিযোদ্ধাই ছিলেন না, ছিলেন একজন সেনা নায়ক। এ জাতির ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য তিনি নিজের জীবন উৎসর্গ করেছেন। বাংলাদেশের ইতিহাসে তাঁর নাম স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। আজ ৩০ মে খুরুশকুল ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি খোরশেদ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪০ তম শাহাদৎ বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত কাঙ্গালি ভোজ, দোয়া ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

তিনি আরো বলেন, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের জন্ম হয়েছিল বলেই এদেশে বাঁকশালের পরিবর্তে বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবর্তন হয়েছে। স্বাধীনতা পরবর্তী দেশের সংকট উত্তরনে এবং দেশ গঠনে তাঁর বলিষ্ট নেতৃত্ব বিশ্ব মানচিত্রে বাংলাদেশ মাথা উচু করে দাঁড়িয়ে ছিল। তিনি শহীদ জিয়াকে বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদের প্রাণ পুরুষ উল্লেখ করে বিএনপি নেতাকর্মীদের বলেন, বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখতে হলে সবাইকে জিয়ার আদর্শ অনুসরণ করতে হবে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলন সংগ্রামের মাধ্যমে এদেশের হারানো গণতন্ত্র পুণঃরুদ্ধার করতে হবে বলেও মন্তব্য করেন বিএনপি’র এই কেন্দ্রীয় নেতা। এর আগে সকাল ১১ টায় পৌর বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব রফিকুল হুদা চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত খতমে কোরআন, দোয়া ও গরীব দুস্থ মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ অনুষ্ঠানে অংশ নেন কেন্দ্রীয় নেতা কাজল। পৃথক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পৌর বিএনপি’র সভাপতি আলহাজ্ব রফিকুল হুদা চৌধুরী, সদর উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি আব্দুল মাবুদ, পৌর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আবুল কাসেম, সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল কাইয়ুম, সদর উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ছৈয়দ নূর সওদাগর, রামু উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আবুল বশর বাবু, সদর উপজেলা বিএনপি’র সিনিয়র সহ-সভাপতি মাস্টার গোলাম কাদের, পৌর বিএনপি’র যুগ্ন সম্পাদক রাশেদ আবেদিন সবুজ, পৌর বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন, মসউদুর রহমান মাসুদ, সদর উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ন সম্পাদক হাবিব উল্লাহ, খুরুশকুল ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান আমানুল হক, সিনিয়র সহ সভাপতি ফয়েজ উল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম ছিদ্দিকী, সদর উপজেলা বিএনপি’র কোষাধ্যক্ষ নুরুল আমিন, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন রিপন, সিনিয়র সহ সভাপতি সাইফুর রহমান নয়ন, যুগ্ম সম্পাদক মিজানুল আলম, সদর উপজেলা যুবদলের আহবায়ক আক্তারুজ্জামান লাভলু, সদর উপজেলা শ্রমিকদলের আহবায়ক মোতাহার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক বুলবুল সিকদার, যুবদল নেতা আতাউল্লাসহ পৌর বিএনপি ও সদর উপজেলা বিএনপির বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •