অনলাইন ডেস্ক: চীন-ভারত সীমান্তের সমস্যা নিয়ে বারবার আলোচনা হয়েছে। তারপরও সমাধান হয়নি সমস্যার। ফের উত্তেজনার মধ্যে সীমান্তে বাড়তি সতর্কতা অবস্থান নিলো ভারতীয় সেনাবাহিনী। শুক্রবার (২৮ মে) এ কথা জানিয়েছেন ভারতের সেনাপ্রধান এমএম নারাভানে। এদিন হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে এ তথ্য।

এমএম নারাভানে বলেন, ভারত-চীন সীমান্তে লালফৌজের কার্যকলাপের উপরও বিশেষ দৃষ্টি রাখা হচ্ছে। এখনো লাদাখের প্যাংগং লেক থেকে কোনো সেনাবাহিনী সরানো হয়নি। গত বছরের এপ্রিল মাসের অবস্থায় ফিরুক দুই দেশের মধ্যকার সম্পর্ক।

এ সেনাপ্রধান জানান, চীনকে স্পষ্টভাবে জানিয়েছে ভারত, উভয়পক্ষের পারস্পরিক আলোচনার মাধ্যমেই কেবল সেনাবাহিনী সরানো হতে পারে। তিনি আরও জানান, পূর্ব লাদাখ সীমান্তে ৫০ হাজার থেকে ৬০ হাজার সেনাবাহিনী মোতায়েন করেছে চীন। এমন পরিস্থিতিতে ভারতও সেনাবাহিনী মোতায়েন করেছে। অঞ্চলটির নিয়ন্ত্রণ রেখা অঞ্চল দেপসাং, গোগরাসহ অন্যান্য পয়েন্টে ভারত সবসময় শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান চায়।

এমএম নারাভানে জানিয়েছেন, শিগগিরই ১২তম বৈঠকে বসবে দুই দেশের কর্মকর্তারা। তবে করোনার জন্য এই বৈঠক পিছিয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ক’দিন আগে অরুণাচল প্রদেশ ও চীন সীমান্ত পরিদর্শন করেন সেনাপ্রধান এমএম নারাভানে। গত ২০ মে অরুণাচল প্রদেশের নর্দান বর্ডার নাগাল্যান্ডের দিমাপুর পরিদর্শন করেন তিনি। উত্তর-পূর্ব অঞ্চলে সতর্কতা অবলম্বনের পরিস্থিতি কেমন সে বিষয়ে জানার জন্যই সেখানে গিয়েছিলেন বলে জানা গেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •