অনলাইন ডেস্ক: রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে সিসিইউতে চিকিৎসাধীন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার হঠাৎ করেই গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে জ্বর এসেছে বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শুক্রবার (২৮ মে) গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। চেয়ারপারসনের এই নতুন উপসর্গ কেনা দেখা দিল, তা নিয়ে দুপুরে পর্যালোচনা বৈঠকে বসবে হাসপাতালের মেডিকেল বোর্ড।

মির্জা ফখরুল বলেন, খালেদা জিয়া এখন মোটামুটিভাবে ভালো, প্যারামিটারগুলো ভালো। কিন্তু গতকাল (বৃহস্পতিবার) রাত থেকে ওনার জ্বর দেখা দিয়েছে। যেটা চিকিৎসকরা ইনভেস্টিগেট করছেন, চিকিৎসা দিচ্ছেন। হঠাৎ করে তার এই জ্বর এসেছে। এটা চিকিৎসকরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করবেন। আজকে আবার তার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ড বৈঠকে বসবে। খালেদা জিয়ার পরবর্তী চিকিৎসা কেমন হবে সে বিষয়ে বৈঠকেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, গত ১১ এপ্রিল খালেদা জিয়ার শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। সেদিন তার বাসভবন ফিরোজায় আরও আটজন ব্যক্তিগত স্টাফও করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হন। ২৪ এপ্রিল দ্বিতীয় দফায় খালেদা জিয়ার করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। পরে ২৭ এপ্রিল রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয় খালেদা জিয়াকে। ৯ মে তৃতীয়বার করোনা পরীক্ষার পর রিপোর্ট নেগেটিভ আসে তার।