বার্তা পরিবেশক:

কক্সবাজার জেলার উখিয়ার সোনারপাড়া হাইস্কুলের খেলারমাঠে বিরোধীয় ২০শতক জমিতে সোনারপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মাণ কাজে কেন নিষেধাজ্ঞার আদেশ প্রচার করা হবে না, তা জানতে চেয়ে উখিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার, এসিল্যান্ড ও স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার, ইঞ্জিনিয়ার, সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার, স্কুলের এডহক কমিটির সদস্যসহ মোট ৯জনকে আগামি ১০ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর জন্য নোটিশ দিয়েছেন-বিজ্ঞ উখিয়া সহকারী জজ আদালত।

মামলা সূত্রে জানা যায়, সোনারপাড়া হাইস্কুলের খেলারমাঠে আর এস মূলে জনৈক আব্দুল জলিলের নামে ২০ শতক জমি রেকর্ড হয়। পরে সেই জমি ভূলভাবে ফজল করিমের নামে রুমখাঁ পালং মৌজা হিসেবে রেকর্ড করে সোনারপাড়া আজিজিয়া জুনিয়র হাই স্কুলের নামে জমিটি রেজিস্ট্রি করে দেন ফজল করিমের পালক পুত্র মৌলভী আব্দুল আজিজ। অথচ এই জমিটি জালিয়াপালং মৌজা হিসেবে প্রমাণিত।

জানা যায়, বিরোধীয় জমিটি মৌলভী আব্দুল আজিজ আর এস খতিয়ানের মূল মালিক আব্দুল জলিলের রক্ত সম্পর্কীয় কেউ নয়। সেখানে তিনি আব্দুল জলিলের আর এস ৫৯৩ নং খতিয়ানের মালিকানাধীন ২০ শতক জমিটিকে তার নিজের রায়তি স্বত্বীয় মালিক বলে দাবী করে ১৯৭৩ সালে ৩৩৮২ নং একটি দলিল সৃজন করেন। উক্ত দলিলে ২ টি তফশিল করা হয়। একটি ৮০ শতক অপরটি ২০ শতক।

উক্ত বিরোধীয় জমির মালিক আব্দুল জলিলের মৃত্যুতে সংশ্লিষ্ট ওয়ারিশরা চলতি মাসের বিগত ২৫মে বিজ্ঞ উখিয়া সহকারী জজ আদালত কক্সবাজারে একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং হচ্ছে-অপর ৪৬৯/২০২১ ইংরেজি। সেখানে উখিয়ার ইউএনও এবং এসিল্যান্ডসহ ৩১ জনকে বিবাদী করা হয়।

ওই মামলাটি বিজ্ঞ উখিয়া সহকারী জজ আদালত গ্রহণ করে বৃহস্পতিবার ২৭ মে (ভার্চুয়াল) আদালতে শুনানির দিন ধার্য করেন। সেখানে বাদী পক্ষের অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার আবেদনের প্রেক্ষিতে মামলার ২৩-৩১নং আসামীদেরকে আগামি ১০ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর জন্য একটি আদেশ দেন বিজ্ঞ উখিয়া সহকারী জজ আদালত কক্সবাজারের সহকারী জজ সায়মা আফরিন হিমা।

যা ইতোমধ্যে জারি হয়ে আদালতের মাধ্যমে সংশ্লিষ্টদের কাছে পৌঁছে দেয়া হয়েছে বলেও জানা গেছে।

বাদী পক্ষের মামলার শুনানিতে অংশগ্রহণ করেন কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিজ্ঞ আইনজীবী আব্দুর রহিম।

উল্লেখ্য, গত ২ মে উখিয়ার সোনারপাড়া হাইস্কুলের খেলারমাঠে বিরোধীয় জমিতে স্কুল কর্তৃপক্ষ নতুন ভবন নির্মাণ করার চেষ্টা করলে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে এলাকার লোকজনকে আসামী করে ৩ টি মামলা দায়ের করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •