ইমাম খাইর, সিবিএনঃ
কক্সবাজার সদরের ইসলামপুরের লবণবোঝাই একটি ট্রাকে মিললো ৪৮ হাজার ইয়াবা।

এ সময় আটক হয়েছে ময়মনসিংহ জেলার কোতোয়ালী থানার ১৯ নং ওয়ার্ডের বলাশপুর এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে ট্রাক চালক মোহাম্মদ মাসুম মিয়া (৪০) ও একই এলাকার আবদুল খালেকের ছেলে হেলপার আলম হোসেন (৩০)।

সোমবার (২৪মে) রাত সাড়ে ৯ টার দিকে পটিয়ার কমলমুন্সিরহাট এলাকা থেকে তাদের আটক করে পুলিশ।

লবণবোঝাই ট্রাকটি ইসলামপুরের সালমা সল্টের মালিক জাহাঙ্গীর আলমের। নিজের মিল থেকেই ট্রাকটিতে লবণ ভর্তি করে, লবণের বস্তার আড়ালে ইয়াবা বিক্রির জন্য নিচ্ছিল বলে স্থানীয়রা জানিয়েছে।

পটিয়া থানার ওসি রেজাউল করিম মজুমদার জানিয়েছেন, লবণভর্তি ট্রাকে ইয়াবার চালানের সংবাদের ভিত্তিতে কমল মুন্সিরহাট মহাসড়কে চেকপোস্ট বসায় পটিয়া থানা পুলিশ। এ সময় ট্রাক থামিয়ে তল্লাশি চালিয়ে লবণের বস্তা থেকে ৪৮ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, জাহাঙ্গীর আলম লবণমিলের কর্মচারি ছিলেন। সময়ের ব্যবধানে তিনি থেকে এখন নিজেই মিল মালিক। বনেছেন শিল্পপতি। তার উত্থান নিয়ে এলাকাবাসীর মাঝে প্রশ্ন রয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে জাহাঙ্গীর আলমকে বেশ কয়েকবার ফোন করলেও ধরেন নি।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ৮ আগস্ট লবণবোঝাই ট্রাকে করে ১ লাখ ৯৬ হাজার ইয়াবা পাচারকালে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের পূর্বাঞ্চল এলাকায় মাসুম মিয়া ও আলো হোসেন র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •