চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়ের উদ্যোগে আজ ২৫ মে ২০২১ ইংরেজি মঙ্গলবার বেলা ১২টায় নগরীর কোতোয়ালী থানাধীন কে.সি দে রোডের পুরাতন গীর্জাস্থ ‘প্যারাগন হোটেল এন্ড বিরিয়ানী হাউজ’-এ তদারকি অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।

একজন ভোক্তার অভিযোগের প্রেক্ষিতে পরিচালিত অভিযানে প্রদত্ত মূল্যের বিনিময়ে অর্ডারকৃত বিরিয়ানি যথাযথভাবে সরবরাহ না করা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার রান্না করে পরিবেশনের অপরাধে এ হোটেলকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এসময় পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন পরিবেশে খাবার রান্নাসহ ভবিষ্যতে খাবার সরবরাহ ও পরিবেশন করা নিয়ে ভোক্তাদের সাথে প্রতারণা না করার বিষয়ে হোটেল মালিককে সতর্ক করা হয়।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ ফয়েজ উল্লাহ, জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ হাসানুজ্জামান ও মেট্টো কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক পাপীয়া সুলতানা লীজা অভিযান পরিচালনা করেন।

আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন)-৯ এর সদস্যরা অভিযানে সহযোগিতা করেন।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ হাসানুজ্জামান জানান, গত ১৬ মে রোববার মেয়ের জন্মদিনের অনুষ্ঠানের জন্য একজন ভোক্তা ‘প্যারাগন হোটেল এন্ড বিরিয়ানী হাউজ’ থেকে প্রতি প্যাকেট ১৪৫ টাকা করে ৮৫ প্যাকেট চিকেন বিরিয়ানী ক্রয় করেন।

ভোক্তার কথামতো বিরিয়ানি প্যাকেট সরবরাহ না করায় ও প্যাকেটের ভিতর তেলে ভেজা আধা সিদ্ধ চিকেন পিস দেয়ার বিষয়টি হোটেল কর্তৃপক্ষকে অবহিত করলে ভোক্তা কোন প্রতিকার পাননি। ১৯ মে বুধবার ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেন তিনি।

ভোক্তার অভিযোগ ছিল-বিরিয়ানি প্যাকেটটিতে প্রয়োজনের তুলনায় ভাত ছিল খুবই নগন্য। প্যাকেটের ভেতরে ভাতের সাথে দেয়া চিকেন পিসটি ছিল তেলে আধা সিদ্ধ ও কিছু কিছু প্যাকেটের ডিম ছিল পচা দুর্গন্ধযুক্ত এবং আলাদা করে দেয়া ঝোলসহ খাবারগুলো অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে রান্না করা ছিল।

আজ ২৫ মে ২০২১ ইংরেজি মঙ্গলবার বেলা ১২টায় হোটেলটিতে অভিযান পরিচালনাকালে অভিযোগের সত্যতা পেয়ে ভোক্তা অধিকার আইনের নির্দিষ্ট ধারায় ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করে তা আদায় করা হয়। একইসাথে হোটেল কর্তৃপক্ষকে ভবিষ্যতের জন্য সতর্ক করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •