মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

সোমবার ২৪ মে রাত ৮ টা ২০ মিনিট। নিত্যদিনের মতো কক্সবাজার জেলা পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের এটিএসআই গোলাম রাব্বানী কলাতলী হাঙ্গর মোড়ে ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ ডিউটি শেষ করে কক্সবাজার পুলিশ লাইনে যাওয়ার জন্য অপেক্ষা করছিলেন। এমন সময় ঢাকা মেট্রো-ম-৫৪-০২৮০ নাম্বার যুক্ত কাভার্ডভ্যান কক্সবাজার-চট্টগ্রাম হাইওয়ে রোড দিয়ে পুলিশ লাইন কক্সবাজার এর দিকে যাচ্ছিল। এটিএসআই গোলাম রাব্বানী ঐ কাভার্ডভ্যানটিকে দাড়ানোর জন্য সংকেত দেয়। ড্রাইভার কাভার্ড ভ্যানটি দাঁড় করালে গোলাম রাব্বানী ড্রাইভারকে পুলিশ লাইন পর্যন্ত তাকে একটু পৌঁছে দিতে অনুরোধ করে। ড্রাইভারের অনেকটা অনিচ্ছা সত্বেও উক্ত কাভার্ডভ্যানের ড্রাইভার তাকে লিফট দেওয়ার জন্য গাড়িতে উঠায়। পরে কাভার্ড ভ্যানটি কলাতলী উত্তর আদর্শ গ্রাম এলাকা অতিক্রম করার সময় কথাপ্রসঙ্গে এটিএসআই গোলাম রাব্বানী ড্রাইভারের কাছে জানতে চায় “তিনি কোথায় যাচ্ছেন এবং একা কেন? হেলপার কোথায়?”

ড্রাইভার এই প্রশ্নের কোন উত্তর না দিয়ে হুট করে চলন্ত ভ্যান হতে লাফ দিয়ে নিচে পড়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়। এটিএসআই গোলাম রাব্বানী দ্রুত চালকের আসনে বসে গাড়িটি নিজের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নেয়। খবর পেয়ে জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা টিম নিয়ে সেখানে উপস্থিত হয়। পরে স্থানীয় জনগন ও সাক্ষীদের সামনে গাড়িটি তল্লাশি করে চালকের আসনের পিছনে বিশেষ কায়দায় রক্ষিত ১৭ হাজার ৪০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও ১০০০ টাকার দুটি নোট উদ্ধার করে তা জব্দ করা হয়।

এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে বলে জেলা পুলিশ সুত্রে জানা গেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •