এ কে এম ইকবাল ফারুক, চকরিয়া
চকরিয়া থেকে অপহরণের তিনদিন পর মো. মুবিন (১৮) নামে এক যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (২১ মে) দুপুর ১২টার দিকে চকরিয়ার পার্শ্ববর্তী পার্বত্য লামা উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নের চিওকতলী এলাকায় সড়কের পাশের পাহাড়ি ঝোঁপ থেকে ওই মরদেহটি উদ্ধার হয়। নিহত যুবক চকরিয়া উপজেলার বরইতলী ইউনিয়নের মাইজপাড়া গ্রামের নুরুল আলমের ছেলে। তিনি পেশায় একজন ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল চালক ছিলেন। এর আগে গত ১৭ মে রাত ১১টার দিকে মোটরসাইকেল নিয়ে ভাড়া মারতে গিয়ে নিখোঁজ হন যুবক মুবিন। এরপর বিভিন্ন এলাকায় খোঁজ খবর নিয়েও কোন সন্ধান পায়নি তার পরিবার।

নিহত মুবিনের চাচা জাহেদুল ইসলাম বলেন, ভাড়া যাওয়ার কথা বলে এক যুবক গত ১৭ মে রাত ১১টার দিকে মুবিনকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর থেকে তার মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় পরিবারের লোকজন আতঙ্কগ্রস্থ হয়ে পড়েন। পরদিন সকাল থেকে নিখোঁজ যুবকের খোঁজ নিতে থাকে তার স্বজনরা। পরে শুক্রবার (২১ মে) দুপুর ১২টার দিকে ফাইতং ইউনিয়নের চিওকতলী এলাকায় সড়কের পাশ দিয়ে অপর এক মোটরসাইকেল চালক যাওয়ার সময় পঁচা দুর্গন্ধ পেয়ে খোঁজ নিতে থাকেন। এসময় সড়কের পাশে ঝোঁপে মুবিনের অর্ধগলিত মরদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয় লোকজন ফাইতং পুলিশ ফাঁড়িতে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে যুবকের মরদেহটি উদ্ধার করে। তবে তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটির কোন হদিস মেলেনি।

তিনি আরো বলেন, ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল চালিয়ে পরিবারের জীবিকা নির্বাহ করতেন মুবিন। তাদের ধারণা, মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যেই মুবিনকে অপহরণ করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •