পোকখালীতে বসতভিটা দখলের অপচেষ্টা শিরোনামে ঈদগাঁও নিউজে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। যা আমার দৃষ্টি গোচর হয়। নিউজটি সম্পুর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। মূল বিষয় হচ্ছে, আমার পারিবারিক বিষয়কে একদল কুচক্রী মহল সাংবাদিক ভাইদের ভুল তথ্য দিয়ে ভিন্নভাবে উপস্থাপন করে হেয়প্রতিপন্ন করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে।
যা খুবই দুঃখজনক। এখানে কোন জবরদখল ও মারধরের কোন ঘটনা ঘটেনি। বরং পারিবারিক বসতঘর ভাগ করতে গিয়ে হাঠাচলার রাস্তা নিয়ে সমস্যা সৃষ্টি হওয়ায় অপর ভাইয়ের সম্মতিক্রমে রাস্তা করার চেষ্টা করা হয়েছে। মূলত আমি ইতালি প্রবাসী থাকাকালে এই বাড়িটি মির্মাণ করা হয়। যেখানে অপর একভাই কিছু টাকা দিয়ে সহযোগিতা করে। কিন্তু যৌথ পরিবারে বসবাস করায় সকল ভাইদের এই বাড়ি থেকে বরাদ্দ দেওয়া হয়। ফলে বাড়ির পূর্বের অবকাঠামো নষ্ট হয়ে যাওয়ায় আমাদের হাঠাচলার জন্যে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। এই বিষয়টি পরিবারের বাহিরের লোকজন ভাইয়ের বউকে প্ররোচনা দিয়ে আমার বিরুদ্ধে লেলিয়ে দিচ্ছে। যা আমি স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, প্রশাসন ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গদের কাছ থেকে সুষ্ঠু সামাধান আশাকরি। পাশাপাশি উক্ত সংবাদে কাউকে বিভ্রান্ত না হওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি।

প্রতিবাদকারী
এজহার মিয়া
পিতা- মৃত এমদাদ হোসেন
সাং- গোমাতলি, পোকখালী, ঈদগাঁও, কক্সবাজার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •