ইমাম খাইর, সিবিএন:
ঈদের পর থেকে গত ৮ দিন ধরে চলাচলের রাস্তায় পড়ে আছে বাসা বাড়ির ময়লা আবর্জনা। দেখা নেই পৌরসভার পরিচ্ছন্নকর্মীদের। রাস্তায় স্তুপ হয়ে থাকা উচ্ছিষ্টগুলো সারানো হয় নি এখনো। যে কারেণ কিছু ময়লা-আবর্জনা সোজা ড্রেনে গিয়ে পড়ছে। পঁচা দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে বাতাসে। ভোগান্তির শিকার পথচারী ও স্থানীয় বাসিন্দারা।

শহরের টেকপাড়া, পেশকারপাড়া, চাউলবাজার, রুমালিয়ারছরা, হাশেমিয়া মাদরাসা এলাকা, কালুরদোকান, এন্ডারসন সড়কে উচ্ছিষ্ট-আবর্জনার স্তুপ দেখেছে বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করেছে।

৪ নং ওয়ার্ডের টেকপাড়া সড়কের এমন একটি দৃশ্য তুলে ধরেছেন স্থানীয় বাসিন্দা ও সংবাদকর্মী মাহাবুবুর রহমান।

তিনি বলেন, গত ৮ দিন ধরে চলাচলের রাস্তায় পড়ে আছে ময়লা আবর্জনা। বাসাবাড়ি থেকেও ময়লা নেওয়া হচ্ছে না। রাস্তা থেকে অপসারন করা হচ্ছে না ময়লা। বাতাসে ছড়াচ্ছে মারাত্মক দুর্গন্ধ। বিব্রতকর পরিবেশে আছে এলাকার মানুষ।

স্থানীয় বাসিন্দা জাহেদ উল্লাহ জাহেদ দুঃখ করে বলেন, পৌরসভার কাউন্সিলসহ বেশ কয়েক জনকে ফোন দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু কেউ ফোন রিসিভ করে না। পৌরসভা ঘুমায়!

মিজানুর রহমান মিল্কী নামের একজন বাসিন্দার দুঃখ, ৫ নং ওয়ার্ডের পশ্চিম এস.এম পাড়া যে পৌরসভার আওতাধীন তা মনে হয় পৌরসভার কর্তারা ভুলে গেছেন! ময়লা পরিস্কার না করার কারণে ড্রেনে এখন গাছ উঠেছে।

এ প্রসঙ্গে জানতে ৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর দিদারুল ইসলাম রুবেলকে ফোনে পাওয়া যায় নি।

মেয়র মুজিবুর রহমানকে শুক্রবার (২১ মে) দুপুর ১২টার দিকে ফোন করা হয়। কল পড়লেও ধরেন নি।

স্থানীয়দের দাবি, দ্রুত সময়ের মধ্যে ময়লা-আবর্জনা সরিয়ে তাদের দুর্ভোগমুক্ত করা হোক।

 

 

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •