বাঁশখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ
বুঝা বড় দায়, এই জায়গায় যে ১২ ফুট চওড়া একটি সড়ক ছিল। দেখে মনে হবে জমির আইল। দু’পাশের মাটি নেই। ইটগুলো এলোমেলো অবস্থায় পড়ে আছে। এসব যেন দেখার কেউ নেই!

ছনুয়া ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের খুদুকখালী গ্রামের মৌলভী নজরুল ইসলাম পাড়া সড়কের এমন হাল। ওই রাস্তা দিয়ে চলাফেরা করে ছনুয়া মদিনাতুল মনোয়ারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আলহাজ্ব মৌলভী নজরুল ইসলাম পাড়া উচ্চ বিদ্যালয়, পুইছড়ি ইজ্জতিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় সহ কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী। তাছাড়া এই রাস্তা দিয়ে যেতে হয় শেখেরখীল মৌলভীবাজার, ছনুয়া বলি বাজার ও পুইছড়ি সরলিয়া বাজারে। বর্তমানে সড়কটিতে গাড়ি চলাচল তো দূরের কথা, মানুষের হাঁটাচলাও দায়। ক্ষতবিক্ষত হয়ে পড়ে আছে অযত্নে অবহেলায়।

জানা যায়, ২০১৬ সালের শেষের দিকে সড়কটি ব্রিকসলিং করে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ। এরপর থেকে আর উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি বলে জানান স্থানীয়রা। সম্প্রতি জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে সরলিয়া বাজার ব্রীজ থেকে মদিনাতুল মনোয়ারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত ইট বসানো হলেও বাকি অংশের অবস্থা নাজুক।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ছনুয়া ৬নং ওয়ার্ডের এক ব্যক্তি বলেন, ‘চেয়ারম্যান সাহেব উন্নয়ন করছেন বলে চারদিকে গলা ফাটাচ্ছে। অথচ নিজের ওয়ার্ডের রাস্তাটার বেহাল অবস্থা। ৭ নম্বর ওয়ার্ডে উনার বাড়ি। রাস্তাটির অবস্থান ওই ওয়ার্ডে।’

এদিকে রাস্তাটির এই করুণ দশা দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন এ প্রতিবেদক। সেখানে তিনি লিখেন, ‘মেরুদণ্ড আছে। কিন্তু দু’পাশের মাংস নেই। ছনুয়ার সড়কের আনকমন রূপ। এই লজ্জা রাখি কোথায়?’

স্ট্যাটাস দেখে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া জানাতে প্রতিবেদককে ফোন করে ছনুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম হারুনুর রশীদ বলেন, ‘তোর মনে যেন চাই এন লেখ। তুই লেখিত জানসদে লেখস দেনা? তোর মতন শিক্ষিতি পোয়া আঁর নাই এডে। এগিন হাম ভালা নঅ গরর। ইয়ার আগে লেইক্কসদে কিছু নঅ হই। এগিন সংশোধন গরি লঅন ভালা।’ ( তোর মনে যা চায়, তা লেখ। তুই লিখতে জানিস লিখিস, তাই না?। তোর মত শিক্ষিত ছেলে আর নাই এখানে? এগুলো কাজ ভালো হচ্ছে না। এর আগে লিখেছিস কিছু বলি নাই। এসব সংশোধন করে নেওয়া ভালো।)

এদিকে ছনুয়ার অভ্যন্তরীণ সড়কগুলোর বেহাল দশার কারণে জনসাধারণের ভোগান্তির শেষ নেই। ছনুয়া কাদেরিয়া সড়ক, ছনুয়া মনুমিয়াজী বাজারের দক্ষিণে ছোট ছনুয়া যাওয়ার একমাত্র রাস্তা আছিয়া সড়ক, আমির হামজার টেক থেকে মধুখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও সাম্বলী পাড়া ও সোলতান সিকদার পাড়া যাওয়ার একমাত্র রাস্তা ডিসি সড়ক, মছন ফকির বাড়ি থেকে পূর্ব মধুখালী যাওয়ার রাস্তাটিরও বেহাল দশা, ৮নং ওয়ার্ডের আশরফ আলী সড়কে জনসাধারণের ভোগান্তির শেষ নেই। এলাকাবাসী বর্ষা মৌসুমের আগে সড়কগুলো সংস্কারের জন্য বাঁশখালীর এমপি আলহাজ্ব মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরীর আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •