মুহাম্মদ মনজুর আলম, চকরিয়া:
চকরিয়া উপজেলার কোনাখালী ইউনিয়নে অবস্থিত পানি উন্নয়ন বোর্ডের স্লুইচগেট দখলে নিতে হামলা চালিয়েছে একদল সন্ত্রাসী। এসময় সন্ত্রাসীদের কিরিচের কোপে মহিলাসহ ৪জন আহত হয়েছেন।

বুধবার সকাল ১১টার সময় কোনাখালী ইউনিয়নের ১নম্বর ওয়ার্ড খাসপাড়ায় এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটেছে। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করেন।

আহতরা হলেন- কোনাখালী ইউনিয়নের খাসপাড়ার মনজুর ইসলামের স্ত্রী উম্মে হাবিবা রুমা (২৪), মো. ইছমাইলের ছেলে মো. শাকিল (২১), তার ভাই রাকিব (১৬) ও হারুনর রশীদের মেয়ে বিলকিছ আরা বেগম (২৮)।

আহত রুমা বলেন, বেলা ১১টার সময় স্থানীয় সন্ত্রাসী সালাহউদ্দিন, আলাউদ্দিন, নুরুল আলম ও আরিফের নেতৃত্বে ২০-২৫ জন লোক কিরিচ ও লাঠি নিয়ে অতর্কিত আমাদের বসতঘরে হামলা চালায়। এসময় বাঁধা দিতে গেলে সন্ত্রাসীরা আমার ডান হাতে কিরিচ দিয়ে কোপ দেয়। এসময় আমি মাটিতে পড়ে যাই। পরে আমার ঘর ভাংচুর করে আরো তিনজনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন।

স্থানীয় কোনখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দিদারুল হক সিকাদর জানান, কোনাখালী ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের খাসপাড়া ৫ নম্বর স্লুইচগেট দেখভাল করে স্থানীয় হারুনর রশীদ নামে এক ব্যক্তি। ২নম্বর ওয়ার্ডের সালাহউদ্দিনসহ আরো কয়েকজন ব্যক্তি এই স্লুইচগেট দখলে নিতে এ হামলা চালিয়েছে। সালাহউদ্দিন একজন সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক। সে বিভিন্ন অপরাধমুলক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত বলেও জানান চেয়ারম্যান।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, কোনাখালীতে হামলার ঘটনায় কোন অভিযোগ দেয়নি। কেউ লিখিত অভিযোগ দিলে তদন্তপূর্বক আইনগত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •