সিবিএন ডেস্কঃ
বাংলাদেশের প্রথম নারী বিচারক ও সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি নাজমুন আরা সুলতানার ক্যারিয়ারে আরেকটি পালক যুক্ত হয়েছে। দেশের প্রথম নারী হিসেবে বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক (ডিজি) পদে তাঁকে নিয়োগ দিয়েছে সরকার।

আইন মন্ত্রণালয়ের আইন ও বিচার বিভাগ থেকে আজ বুধবার নাজমুন আরার নিয়োগ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র ব্যারিস্টার সাইফুর রহমান বিকেলে এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘বাংলাদেশের ইতিহাসে নাজমুন আরা সুলতানা প্রথম নারী হিসেবে এই পদে নিয়োগ পেলেন।’
নাজমুন আরা সুলতানা বাংলাদেশের প্রথম নারী বিচারক হিসেবে যোগদান করেন। পরে তিনিই প্রথম নারী, যিনি হাইকোর্ট ও আপিল বিভাগেরও বিচারপতি ছিলেন। ২০১৭ সালের ৭ জুলাই তিনি অবসরে যান বলেও জানান মুখপাত্র।
আইন ও বিচার বিভাগরের সচিব মো. গোলাম সারওয়ার স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ১৯৯৫ সালের বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট আইনের ১১ (২) ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে সরকার বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক পদে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি নাজমুন আরা সুলতানাকে তাঁর যোগদানের তারিখ থেকে দুই বছরের জন্য নিয়োগ প্রদান করলেন।
এই পদে কর্মরত থাকাকালে নাজমুন আরা সুলতানা সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারকের প্রাপ্য বেতন-ভাতা এবং অন্যান্য সুবিধাপ্রাপ্ত হবেন।
বিচারপতি নাজমুন আরা সুলতানা দেশের প্রথম নারী বিচারক হিসেবে ১৯৭৫ সালের ২০ ডিসেম্বর মুনসেফ (সহকারী জজ) হিসেবে বিচার বিভাগে যোগ দেন এবং ধাপে ধাপে জেলা জজ হিসেবে পদোন্নতি পান। এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রথমবার সরকার গঠন করলে ২০০০ সালে হাইকোর্ট বিভাগের প্রথম নারী বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পান তিনি। ২০১১ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের আমলেই তিনি আপিল বিভাগের প্রথম নারী বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পান। ২০১৭ সালের ৭ জুলাই অবসরে যান তিনি।
বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের বর্তমান মহাপরিচালক বিচারপতি খোন্দকার মূসা খালেদের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন নাজমুন আরা। মূসা খালেদের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের মেয়াদ আগামীকাল বৃহস্পতিবার শেষ হচ্ছে।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •