মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে অক্সিজেন প্ল্যান্ট এবং কিডনি ডায়ালাইসিস সেন্টার স্থাপন করা হবে। এজন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। কক্সবাজারে চিকিৎসা সুবিধা বাড়াতে এবং কক্সবাজারের নাগরিকদের জন্য চিকিৎসা ব্যবস্থা আরো উন্নত করতে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব ও করোনা সংক্রামণ নিয়ন্ত্রণে কক্সবাজার জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত সমন্বয়ক হেলালুদ্দীন আহমদ এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, কক্সবাজারে অক্সিজেন প্ল্যান্ট এবং কিডনি ডায়ালসিস সেন্টার স্থাপন খুব জরুরী হয়ে পড়েছে। তাই এর প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করে তা বাস্তবায়নে সরকারের নীতিনির্ধারণী মহলে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন বলে সিনিয়র সচিব জানান।

কক্সবাজারের কৃতি সন্তান সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ আরো জানান, করোনা আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসার অন্যতম উপাদান হচ্ছে- অক্সিজেন। কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন সাপ্লাই ব্যবস্থা থাকলেও সিলিন্ডার গুলো চট্টগ্রাম থেকে রিফিল করে আনতে হয়। ফলে এনিয়ে বিভিন্ন ধরনের বিড়ম্বনা পোহাতে হয়। এজন্য কক্সবাজারে একটি অক্সিজেন প্ল্যান্টের অপরিহার্যতা রয়েছে। একটি অক্সিজেন প্ল্যান্ট স্থাপিত হলে এ সংকট আর থাকবেনা। অক্সিজেন প্ল্যান্ট থেকেই অক্সিজেন জেনারেট (উৎপাদন) করে তা সরবরাহ করা যাবে।

এছাড়া কিডনি রোগীদের চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে কোন ডায়ালসিস যন্ত্রপাতি নেই। কিডনি ডায়ালসিস সেন্টার স্থাপন করার প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করে একইসাথে একটি কিডনি ডায়ালসিস সেন্টার স্থাপনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জানান-সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে এ ২টি প্রকল্প স্থাপন করা হলে অনেক করোনা আক্রান্ত রোগী ও অন্যান্য রোগে আক্রান্ত রোগী বাঁচানো সম্ভব হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। পাশাপাশি কক্সবাজারে অক্সিজেন প্ল্যান্ট এবং কিডনি ডায়ালসিস সেন্টার স্থাপন করা হলে কক্সবাজার জেলার সামগ্রিক চিকিৎসা ব্যবস্থার আমুল পরিবর্তন হবে বলে মন্তব্য করেন-সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •