সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ
চট্টলা ইঞ্জিনিয়ার্স ক্লাবের ঈদ পুনর্মিলনী (ভার্চুয়াল) সম্পন্ন হয়েছে।
সোমবার (১৭ মে) রাত ৮ টায় চট্টলা ক্লাবের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আতিক সুজনের সভাপতিত্বে ও সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন আরএনডি টেকনোলজির (R&D Technology) প্রধান, চট্টলা ইঞ্জিনিয়ার্স ক্লাবের নির্বাহী পরিচালক তৌহিদ নূর।
শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন ক্লাবের প্রতিষ্ঠাকালিন এডমিন ইঞ্জিনিয়ার নিউটন চৌধুরী।
চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আতিক সুজন শুরুতে অান্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে আমাদের ক্লাব মেম্বাররা সবাই একত্রিত হতে পারে নাই। পরবর্তী অনুষ্ঠানে ইনশাআল্লাহ সবাই থাকবে।
তিনি বলেন, চট্টলা ইঞ্জিনিয়ার্স ক্লাব একটি সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক মানবতার স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। গ্রুপের মেম্বারদের উন্নত জগৎ গঠন, প্রযুক্তির অনুশীলন ও উন্নতিকরণ, গ্রুপের ইঞ্জিনিয়ার এবং নন- ইঞ্জিনিয়ার মেম্বারদের ইঞ্জিনিয়ারিং অনুশীলন ও পেশাগত দক্ষতা প্রচার, গ্রুপের মেম্বারদের নিয়ে জব কমিউনিটি সৃষ্টি বা জবলেস মেম্বারদের জব ম্যানেজ করা এইসব মহৎ উদ্যোগ নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে চট্টলা ইঞ্জিনিয়ার্স ক্লাব।
আতিক সুজন আরো বলেন “নতুন সৃষ্টিই আমাদের প্রয়াস” এই স্লোগানকে সামনে রেখে চট্টলা ইঞ্জিনিয়ার্স ক্লাব এগিয়ে যাক এটাই আমার প্রত্যাশা রইল।
পরিশেষে তিনি ক্লাবের উত্তরোত্তর সফলতা কামনা করেন।
উক্ত অনুষ্ঠানের সাংস্কৃতিক পর্বে প্রানবন্ত সঙ্গীত দিয়ে মাতিয়ে রাখেন ক্লাব মোডারেটর ইঞ্জিনিয়ার শিলা, সোহান লোকমান, দয়াল বড়ুয়া, তাজ উদ্দিন। অনুপম আবৃত্তি উপস্থাপন করেন ইঞ্জিনিয়ার ফারহান নাছির নিরনয়, সভাপতি আতিক সুজন, রম্য হাসির কোতুক উপ্সথাপন করেন মো রাসেল, মো ইউনুস, আরিফুর রহমান বাপ্পি।
ভার্চুয়ালি উপস্থিত ছিলেন- আরিফুর রহমান, ক্যামেলিয়া আফরিন, নাজমুল হক, কামাল উদিন সাব্বির, নিউটন চৌধুরী, সানজিদা নাসরিন, আবুল হাসেম শিপন, মোহাম্মদ রাসেল, তৌহিদ নূর,রাফিয়া তাসনিম কাকলী, সৌরভ পাল, ইঞ্জিনিয়ার শিলা,জয়ন্ত রায় অভি, মোহাম্মদ এমরান ভূঁঞা নাদিম,শফিকুল আযম চৌধুরী, সেলিনা আকতার, মোহাম্মদ নাঈম উদ্দিন, রাসেল কান্তি রনি ও মোঃ মেশাররফ মজুমদার, দয়াল বড়ুয়া, শেখ আব্দুল্লাহ আল নোমান, তুহিন বঞ্জ, ফারহান নাছির নির্ণয়, এমডি মোক্তাদির, সারজিন জান্নাত বাপ্পি,তাজ উদ্দিন, সোহান লোকমান, রমজান আলী, মোহাম্মদ ফেরদোস, সেগুপ্তা নাস্রিন তামান্না,জহিরুল ইসলাম সজল।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •