বান্দরবান প্রতিনিধি:

বান্দরবান শহরের ৮নং ওয়ার্ডের সবুজবাগ এলাকায় নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য গাঁজা সেবনকালে দুই যুবকের বাকবিতন্ডতা ও মারামিতে এক যুবক ছুরিকাহত হয়ে গুরুতরভাবে আহত হয়েছে। গুরুতর আহত আল আমিন পেশায় একজন রাজমিস্ত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে বান্দরবান শহরের ৮নং ওয়ার্ডের সবুজবাগ এলাকায় কিছু যুবক পাহাড়ের চুড়ায় বসে প্রতিনিয়ত নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য গাঁজা সেবন করে আসছিল,তারই ধারাবাহিকতায় ১৭ মে (সোমবার) দুপুরে একই স্থানে গাঁজা সেবন করতে বসে গুরতর আহত আল-আমিনসহ তার কিছু বন্ধু।

সুত্রে আরো জানা যায়, গাঁজা সেবনের এক পর্যায়ে কথা কাটাকাটিতে আল-আমিন এর সাথে মো. শাহীনের মধ্যে তুমুল ঝগড়া সৃষ্টি হলে মো. শাহীন ছুরি দিয়ে আল-আমিন এর দেহের বিভিন্ন অংশে আঘাত করে। এসময় ছুরির আঘাতে আল-আমিন এর শরীর থেকে প্রচুর রক্তপাতে  মাটিতে পড়ে গেলে সংগে  থাকা  বন্ধুরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।

এসময় আল-আমিন এর চিৎকারে আশেপাশের বাসিন্দারা তাকে উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগে ভর্তি করলে ডাক্তাররা তার অবস্থা সংকটাপন্ন বলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে।

সদর হাসপাতালের ডাক্তার মো. নাছির উদ্দিন জানান, আহত অবস্থায় আল-আমিনকে বান্দরবান সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগে আনা হয়েছিল। তার দুই কাধেঁ ছুরির আঘাত রয়েছে এবং প্রচুর রক্তক্ষরণ হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম চৌধুরী জানান, ঘটনার সংবাদ পেয়ে পুলিশের একটি টিম সেখানে গিয়ে মো. শাহীন নামে এক যুবককে আটক করেছে এবং এই ঘটনায় জড়িত অন্যান্য আসামীদের আটকের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •