ওয়ান্ডার ওম্যানের নায়িকা গ্যাল গ্যাদত টুইটার ও ইন্সটাগ্রামে ইসরায়েলের পক্ষ নিয়ে ভীষণ চাপের মুখে পড়েছেন। ফিলিস্তিনের ওপর ইসরায়েলের সাম্প্রতিক সহিংসতায় স্বদেশের জন্যই মন পুড়ছে এই হলিউড তারকার।

গ্যাল গ্যাদত ইসরায়েলের নাগরিক এবং দেশটির সামরিক বাহিনীতেও কাজ করেছেন।

৩৬ বছর বয়সী এই নায়িকা টুইটারে লিখেছেন, আমার দেশ ইসরায়েল এখন যুদ্ধে। আমি আমার পরিবার, বন্ধুবান্ধব এবং দেশের জনগণের জন্য উদ্বিগ্ন। দীর্ঘদিন ধরে এ বিদ্বেষের ধারা চলে আসছে। ইসরায়েল মুক্ত এবং স্বাধীন দেশ হিসেবে চলার যোগ্য। আমাদের প্রতিবেশীদেরও সে যোগ্যতা আছে। আমি হতাহতদের পরিবারের জন্য প্রার্থনা করছি। এ শত্রুতার অবসান ঘটুক। রাষ্ট্রনেতাদের প্রতি আমার আকুতি এর একটা সমাধান বের করুন। আমরা যেন পাশাপাশি সুখে-শান্তিতে বসবাস করতে পারি।

গ্যাল গ্যাদতের এই পোস্ট নিরপেক্ষ হলেও তুমুল সমালোচনায় পড়েছেন। ইসরায়েল সেনাবাহিনীতে কাজ করে প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে জাতিগত নিধনে অংশ নেয়ার জন্য গ্যাদতকে দায়ী করছেন নেটিজেনরা।

আবার অনেকেই বলছেন, গ্যাল গ্যাদতকে বয়কট করা উচিত এমনটা বলা অতিরিক্ত বাড়াবাড়ি। সে নিজ দেশের সরকারের আক্ষরিক হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। কারণ সে একসময় ইসরায়েলের সেনাবাহিনীতে কাজ করতো। সে ফিলিস্তিন শব্দটাও উচ্চারণ করতে পারে না। তাহলেই ইতিহাসের আস্তাকুঁড়ে নিক্ষিপ্ত হবে!

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •