নিজস্ব প্রতিবেদক :
করোনাকালে কর্মহীন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা এবারের ঈদ যাতে স্বাচ্ছন্দ্যে উদযাপন করতে পারে সেজন্য কক্সবাজার-১ আসনের সংসদ আলহাজ জাফর আলমের ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে বরাবরের মতোই ঈদ উপহার হিসেবে নগদ টাকা বিতরণ অব্যাহত রয়েছে।

বুধবার (১২ মে) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত চকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন তথা পেকুয়ার ৭ ইউনিয়ন এবং চকরিয়ার হারবাং, বরইতলী (দ্বিতীয়দফায়), কাকারা ও বমুবিলছড়ি ইউনিয়নের ৬১২ জন নেতাকর্মীকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সৌজন্যে এমপি ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাফর আলম এমএ’র ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে নগদ ২০০০ টাকা করে এই ঈদ উপহার বিতরণ করা হয়। এ সময় এমপি জাফর আলম নিজে উপস্থিত থেকে দলীয় নেতাকর্মীদের হাতে এই উপহারের টাকা তুলে দেন।

এর আগে গত শনিবার থেকে ডুলাহাজারা ইউনিয়ন, বিএমচর ইউনিয়ন, লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন, খুটাখালী ইউনিয়ন, ঢেমুশিয়া ইউনিয়ন, পশ্চিম বড় ভেওলা ইউনিয়ন, কোনাখালী ইউনিয়ন, বরইতলী ইউনিয়নের সাংগঠনিক পহরচাঁদা ইউনিয়ন, ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নে ঈদ উপহার হিসেবে নগদ টাকা বিতরণ করা হয়। এছাড়াও এমপির ঐচ্ছিক তহবিল থেকে চকরিয়া ও পেকুয়ার ৯৯ জন নারী-পুরুষের মাঝে বিভিন্ন অংকে নগদ ৫ লক্ষ টাকা প্রদান করা হয়েছে। উপকারভোগী হিসেবে ঐচ্ছিক তহবিলের এই নগদ অর্থ সহায়তা পেয়েছেন মুক্তিযোদ্ধা, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ থেকে শুরু করে জলদাস সম্প্রদায়ের নেত্রীসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ।
এমপি জাফর আলমের ব্যক্তিগত সহকারী আমিন চৌধুরী জানান, পর্যায়ক্রমে চকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলার ২৫টি ইউনিয়ন এবং একটি পৌরসভার দলীয় এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সৌজন্যে এমপির ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে ঈদ উপহার হিসেবে নগদ টাকা বিতরণ অব্যাহতভাবে চলছে।

তিনি জানান, বুধবারও সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত পেকুয়া উপজেলার সাতটি ইউনিয়নের ২৬৮ জন, চকরিয়ার হারবাং ইউনিয়নের ১২৫ জন, দ্বিতীয়দফায় বরইতলী ইউনিয়নের ৪৫ জন, কাকারা ইউনিয়নের ১০০ জন এবং বমুবিলছড়ি ইউনিয়নের ৭৪ জনের প্রত্যেক নেতাকর্মীকে ঈদ উপহার হিসেবে নগদ ২০০০ টাকা করে বিতরণ করা হয়।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন পেকুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক আবু হেনা মোস্তফা কামাল, পেকুয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম, ভাইস চেয়ারম্যান উম্মে কুলসুম মিনু, আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম, টৈটং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী, এমপির ব্যক্তিগত সহকারী আমিন চৌধুরী, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুজিবুল হক রতন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও কাকারা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শওকত ওসমান, প্রচার সম্পাদক আবু মুছা, ফয়সাল সিদ্দিকী, হারবাং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মিরানুল ইসলাম, বরইতলীর নজরুল ইসলামসহ সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল নেতৃবৃন্দ এবং যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •