রকিয়ত উল্লাহ, মহেশখালী:

কক্সবাজারের মহেশখালীতে পিতা ও তার লোকজনের হাতে ছেলে খুন হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে নিহতের মা, ভাই-বোনসহ চার জন।

সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে মহেশখালী উপজেলার শাপলাপুর ইউনিয়নের জামিরছড়ি এলাকায় পিতা আলতাফ হোসেনের নেতৃত্বে ঘুমন্ত অবস্থায় ছেলে ও পরিবারের অন্য সদস্যদের উপর এ হামলা চালানো হয় বলে জানিয়েছেন নিহতের স্বজনরা। আহতদের শোর চিৎকারে আত্মীয় স্বজনরা এগিয়ে এসে তাদেরকে উদ্ধার করে পাশ্ববর্তী উপজেলা চকরিয়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. জোবাইর(৩৫) কে মৃত ঘোষনা করেন।

হামলায় গুরুত্বর আহত নিহতের ভাই মোঃ ফয়সাল(২৮) বোন জুনু বেগম(৪০)মা জান্নাত বেগম(৫৫) ও ভাগনী শামিমা(১৬) কে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন।
তাদের অবস্থাও আশংকাজনক বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে।

স্বজনরা জানিয়েছে আলতাফ হোসেনের নেতৃত্বে তার ভাই ও অপর স্ত্রীর সন্তান সহ ৮-১০ সন্ত্রাসী মুখোশ পড়ে ঘুমন্ত অবস্থায় হামলা করে হাত-পায়ের রগ কেটে ছেলেকে হত্যা করে ও পরিবারের অন্যদের গুরুত্বর জখম করে।

মহেশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হাই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে পিতার নেতৃত্বে হামলা চালিয়ে ছেলেকে খুন করা হয়। পুলিশ সকালে নিহত জোবায়ের এর লাশ চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরন করেছে।

অপরদিকে ভোরে মহেশখালীর মৌলভীকাটা এলাকায় এক বাড়িতে আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় হত্যার দায়ে অভিযুক্ত আলতাফ হোসেন ও তার ছেলে টিপুকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •