সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ

দৈনিক সমুদ্রকন্ঠ’র সম্পাদক ও কক্সবাজার রিপোর্টার্স ইউনিটি উপদেষ্টা অধ্যাপক মঈনুল হাসান পলাশ, বার্তা সম্পাদক আমিরুল ইসলাম রাশেদ, এবং অনলাইন ভিজুয়্যাল নিউজ পোর্টাল টিটিএনের চেয়ারম্যান ও সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ও জাহেদ সরওয়ার সোহেল, বার্তা প্রধান তৌফিকুল ইসলাম লিপু, প্রধান প্রতিবেদক আজিম নিহাদ ও সানজিদুল আলম সজিবসহ ছয় সাংবাদিকের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মামলার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে কক্সবাজার রিপোর্টার্স ইউনিটি (সিআরইউ)। এ মামলাকে ভূমিদস্যুর চরম ধৃষ্টতা উল্লেখ করে তা দ্রুত প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

সোমবার (১০ মে) বিকেলে কক্সবাজার শহরের আছাদ কমপ্লেক্সস্থ কক্সবাজার রিপোর্টার্স ইউনিটির কার্যালয়ে আয়োজিত জরুরি সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি রাসেল চৌধুরী। সাধারণ সম্পাদক ও ইত্তেফাক প্রতিনিধি সায়ীদ আলমগীরের সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বলেন, মামলার বাদী জাহাঙ্গীর কাসেম একজন সুবিধাবাদী ও মুখোশধারী গডফাদার। তিনি চিহ্নিত ভূমিদস্যু। তার বিরুদ্ধে পাহাড় কাটার দায়ে বনবিভাগে একাধিক মামলা রয়েছে। এরপরও জেলার আলোচিত এ পাহাড় খেকো সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা করে ধৃষ্টতা দেখিয়েছেন।

নেতৃবৃন্দ বলেন, জাহাঙ্গীর কাসেম তার পাহাড় কাটাসহ অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড নিয়ে লেখালেখি না করতে ভয় দেখানোর কৌশল হিসেবে এই মিথ্যা ও হয়রানিমূক মামলার আশ্রয় নিয়েছেন। কিন্তু তিনি ভুলে গেছেন সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা-হামলা করে দমিয়ে রাখা যায় না। অবিলম্বে মামলাটি প্রত্যাহার করা না হলে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেন বক্তারা।

সভায় বক্তব্য রাখেন, কক্সবাজার রিপোর্টার্স ইউনিটির কার্যকরী সদস্য ঢাকা ট্রিবিউন ও যায়যায়দিন প্রতিনিধি জাবেদ আবেদীন শাহীন, কক্সবাজার ভিশনের সম্পাদক আনছার হোসেন, যমুনা টেলিভিশনের কক্সবাজার প্রতিনিধি নুরুল করিম রাসেল, মোহনা টেলিভিশন প্রতিনিধি আমানুল হক বাবুল প্রমূখ।

এসময় সংগঠনের সদস্য দৈনিক কক্সবাজার’র প্রতিবেদক এম, বেদারুল আলম, আজকের জীবন প্রতিনিধি আবদুল্লাহ নয়ন, বিডিলাইভ২৪ প্রতিনিধি শাহীন মাহমুদ রাসেল, সময়ের আলো প্রতিনিধি আমীর রাশেদ, বিজয় টিভি প্রতিনিধি শাহ আলম, আামর সময় প্রতিনিধি দিদারুল আলম, একুশে পত্রিকা ও বাংলাদেশ নিউজ প্রতিনিধি জসীম উদ্দিন, সমুদ্র কন্ঠ’র প্রতিবেদক শাহী কামরান, দৈনিক মেহেদীর নির্বাহী সম্পাদক নাজিম উদ্দীন, দেশবার্তা প্রতিবেদক তামজিদ পাশা, সকালের সময় প্রতিনিধি সাহেদ ফেরদৌস হিরু, সাগরদেশ’র প্রতিবেদক এমরান ফারুক অনিক, রূপসীগ্রাম’র প্রতিবেদক ওমর ফারুক জয়, আজকালের খবর প্রতিনিধি তাহযিবুল আনাম ট্রপি, কক্সবাজার জার্নাল’র আদালত প্রতিবেদক এড. বাপ্পী শর্মা ও সমুদ্র কন্ঠ’র আনোয়ার হোসেন প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি পাহাড় কাটার সংবাদ প্রকাশের জেরে উক্ত সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে একটি মানহানি মামলা দায়ের করেন এক সময়ে আলোচিত শিবির ক্যাডার ও বর্তমান এবি পার্টির কেদ্রীয় নেতা জাহাঙ্গীর কাসেম।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •