বাঁশখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ
চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় ট্রাক ও অটোরিকশার সংঘর্ষে ৪জন নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। ৪জনের মধ্যে মা-মেয়েও রয়েছেন।

সোমবার (১০ মে) সকাল সাড়ে ৯টায় পৌরসভায় ট্রাকের ধাক্কায় একজন এবং দুপুর সাড়ে ১২টায় বাঁশখালী প্রধান সড়কের বাণীগ্রাম দমদমা দিঘীর পাড় এলাকায় সড়ক দূর্ঘটনায় তিনজন মারা যান।

সকাল ৯টায় পৌরসভায় নিহত ব্যক্তির নাম দুলাল চক্রবর্তী (৭০)। তিনি বাঁশখালী পৌরসভার বাসিন্দা।

দুপুরে নিহতরা হলেন- বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির আবুল হাশেমের পুত্র আবদুর রহিম (২৫), কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার আরমানের স্ত্রী সানজিদা করিম, আরমানের মেয়ে প্রিয়া মনি(০৩)

আহত তিন জন হলেন চকরিয়া উপজেলার নুরুল ইসলামের পুত্র আরমান(২৮), একই উপজেলার আবদুস সোবহানের মেয়ে মাহি(১৮), পেকুয়া উপজেলার নুর মোহাম্মদের পুত্র আইয়ুব।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সকালে নিহত দুলাল চক্রবর্তী ত্রাণের জন্য পৌরসভা কার্যালয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন। তিনি ট্রাকের ধাক্কায় মায়া যান। অন্যদিকে দুপুরের সড়ক দুর্ঘটনায় অটোরিকশাটি শহর থেকে উপজেলা সদরের দিকে আসছিল। ট্রাকটি শহরগামী ছিল। অটোরিকশাটিকে ট্রাকটি ধাক্কা দিয়ে রাস্তের পাশে ফেলে দেয়। দুটি ঘটনায় ট্রাক চালক পলাতক রয়েছে। ঘটনার পর বাণীগ্রামে বিক্ষুব্ধ জনতা সড়ক অবরোধ করলে দু’পাশে যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেন।

এদিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন আনোয়ারা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) হুমায়ুন কবির, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাঈদুজ্জামান চৌধুরী, সাধনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন চৌধুরী খোকা, বাঁশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শফিউল কবির।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বাঁশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শফিউল কবীর বলেন, লাশ তিনটি রামদাশহাট পুলিশ ফাঁড়িতে রাখা হয়েছে। তাদের স্বজনরা আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করা হচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •