অনলাইন ডেস্ক:
ভারতে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) পরিরিস্থিতি খুবই ভয়াবহ। এবার রক্তচক্ষু দেখাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গে। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যে সম্পূর্ণ লকডাউন চালু হবে কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে রাজ্যবাসীর মনে।

আজ সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিলেন, রাজ্যে পূর্ণাঙ্গ লকডাউন করা হবে না। এদিন মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী বললেন, ‘সম্পূর্ণ লকডাউন নয়। তবে লকডাউনের মতো কড়া বিধি দরকার। লকডাউনের মতো ব্যবহার করতে হবে আমাদের। লকডাউন দিলে মানুষ খেতে পাবে না। সকলকে কোভিড নির্দেশ কড়াভাবে মেনে চলতে হবে। এবার কোভিড বেশি হচ্ছে, সংক্রমণের হারও বেশি।’

তিনি বলেন, ‘সম্পূর্ণ লকডাউনের পক্ষপাতী নই। বহু গরিব মানুষের সমস্যা হবে। ওদের তো দিন চালাতে হবে। বরং ভালোভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। মনে রাখবেন, মাস্ক পরতে হবে, ভালো করে স্যানিটাইজ করতে হবে, হাত বারবার ধোবেন। লোকাল ট্রেন বন্ধ হওয়ায় ঝুঁকি অনেকটা কমেছে। লকডাউনের মতো করেই চলুন সবাই।’
ইতোমধ্যেই করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ সামলাতে রাজ্যে জারি করা হয়েছে একাধিক বিধিনিষেধ। এখন আংশিক লকডাউনের মতোই চলছে। বন্ধ লোকাল ট্রেন, অন্যান্য পরিবহন চলছে ৫০ শতাংশ। দিনে মাত্র ৫ ঘণ্টা খোলা দোকান, বাজার, বন্ধ শপিংমল ও সিনেমা হল।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •