ইমরান আল মাহমুদ,উখিয়া:
মুসলমানদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে শপিংমলে বাড়ছে ক্রেতাদের ভিড়। করোনা পরিস্থিতিতে ঈদ উৎযাপনের সব প্রস্তুতি সেরে নিচ্ছে মুসলিম সম্প্রদায়।

টানা কয়েকদিন উখিয়া উপজেলার বিভিন্ন স্টেশনের শপিংমল ঘুরে দেখা যায়, লেডিস,জেন্টস ও জুতার শোরুমে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা যায়। করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বেচাকেনা কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হিমশিম খাচ্ছে বিক্রেতারা।

উপজেলার কোটবাজার চৌধুরী মার্কেট,আরব সিটি সেন্টার,এন আলম মার্কেট ও মরিচ্যা বাজারের তমিজ মার্কেট,জেএসআর শপিংমলে দেখা যায়, প্রায় কাপড়ের দোকানে তিল ধারণের ঠাই নেই। নতুন নতুন কালেকশনের পছন্দ অপছন্দ নিয়ে ব্যস্ত শপিং করতে আসা ক্রেতারা।

শপিংমলে আসা কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, শিশুদের জন্য নিত্য নতুন শার্ট প্যান্ট,পাঞ্জাবি সহ ঈদের সব কালেকশন কেনাকাটার জন্য তারা মার্কেটে এসেছে। তবে তরুণ-তরুণীদের সংখ্যাও ছিলো চোখে পড়ার মতো।

কোটবাজার দোকান মালিক সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান সওদাগর জানান,লকডাউনে শপিংমল খোলার অনুমতি দেওয়ায় সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করি। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে মার্কেটের সব দোকানীকে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

তবে গতবছর প্রায়ই সব কাপড় ও জুতার শোরুমে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা থাকলেও এবার ভিন্ন চিত্র দেখা যায়। গুটি কয়েক দোকানে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করা হচ্ছে।

রহমানিয়া গার্মেন্টসের স্বত্বাধিকারী আব্দুর রহমান বলেন,আমার দোকানে কেনাকাটা করতে আসা ক্রেতাদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতে যাদের মুখে মাস্ক নেই তাদের বিনামূল্যে মাস্ক দেওয়া হচ্ছে এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার সহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •