বাংলা নিউজ: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশ নিতে চায় তার পরিবার। ইতোমধ্যেই এ বিষয়ে পরিবার ও বিএনপির পক্ষ থেকে সরকারের উচ্চ পর্যায়ে যোগাযোগ করা হয়েছে।

এ প্রেক্ষিতে সোমবার (৩ মে) রাতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ফোনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে কথা বলেছেন। বিএনপি মহাসচিব স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে জানান এবং তাকে বিদেশে নিতে পরিবারের ইচ্ছার কথা তুলে ধরেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিএনপি মহাসচিবকে জানিয়েছেন, বিষয়টি সরকারের নয়, আদালতের এখতিয়ার। তিনি এ ব্যাপারে আদালতে আবেদন করার পরামর্শ দেন।

সোমবার সকালে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় তাকে করোনারী কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) নেওয়া হয়। তবে তিনি স্বাভাবিকভাবে শ্বাস-প্রশ্বাস নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক প্রফেসর ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন।

সোমবার রাতে খালেদা জিয়াকে দেখে হাসপাতালের বাইরে এসে ডা. জাহিদ সাংবাদিকদের বলেন, আমি কিছুক্ষণ আগে ওনার সঙ্গে কথা বলে এসেছি, তিনি আমার সঙ্গে কথা বলেছেন।

ডা. শাহাবুদ্দিন তালুকদারের নেতৃত্বে ১০ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ডের অধীনে খালেদা জিয়ার যথাযথ চিকিৎসা চলছে বলে জানান ডা. জাহিদ।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে মির্জা ফখরুলের টেলিফোনে কথা বলার বিষয়ে জানতে চাইলে খালেদা জিয়ার প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান বাংলানিউজকে বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছু জানি না।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ব্যক্তিগত সহকারী ইউনূস আলী বাংলানিউজকে বলেন, স্যার একটা ভার্চ্যুয়াল আলোচনা সভায় আছেন, দুপুর ১টার (৪মে) আগে তাকে পাওয়া যাবে না। আর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনে কথা বলার বিষয়ে কিছু জানেন না বলে জানান বিএনপি মহসচিবের ব্যক্তিগত সহকারী।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •