মোঃ নাজিম উদ্দিন, দক্ষিণ চট্টগ্রাম:
সাতকানিয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে স্কেভেটর দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ২ ব্যক্তিকে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এছাড়া উপজেলার কাঞ্চনা ফুলতলা, দেওদীঘি বাজার ও জোটপুকুরিয়া বাজারে মূল্য তালিকা না টাঙানো, ওষুধের দোকান ও মাস্ক পরিধান না করাসহ মোট ১৫টি মামলায় ১৩১০০ টাকা জরিমানা করেছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং সহকারী কমিশনার (ভূমি)।

রবিবার দিনব্যাপী এ ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা আদায়ের পর জব্দকৃত স্কেভেটরগুলো মালিককে বুঝিয়ে দেয়া হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার কার্যালয় সূত্রে জানা য়ায়, ছদাহা ইউনিয়ন এলাকার একটি খাল থেকে স্কেভেটর দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে, এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ইউএনও এবং সহকারী কমিশনার (ভূমি) অভিযান চালিয়ে ২টি স্কেভেটর (মাটি খনন যন্ত্র) জব্দ ও লোহাড়ার পদুয়া ইউনিয়নের উত্তর পদুয়া আমিনুল হকের ছেলে জাহেদুল ইসলাম (৩৫) ও ছদাহা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড মজিদার পাড়ার সাব্বির আহমদের ছেলে শাহাব উদ্দীন (৩৮) কে আটক করে। এসময় জব্দ করা হয় বালু উত্তোলনে ব্যবহৃত ২টি স্কেভেটর। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত জাহেদকে ৭০ হাজার ও শাহাব উদ্দীনকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে তাদের মুক্ত ও স্কেভেটরগুলো তাদের ফেরত দেয়া হয়।

ইউএনও মো. নজরুল ইসলাম বলেন, বালু মহাল, ভোক্তা অধিকার ও সংক্রমণ বিধি আইনে তাদের জরিমানা ও স্কেভেটরগুলো জব্দ করা হয়েছিল। এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •