রিদুয়ানুর রহমান, কক্সবাজার:
কক্সবাজার জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও উখিয়ার বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ সিরাজুল হক প্রকাশ সিরাজ বিএ’র ৩য় মৃত্যু বার্ষিকী আজ। ২০১৮ সালের ২ মে দুপুর ১২টায় সড়ক দুর্ঘটনায় মারাত্মকভাবে আহত হয়ে কক্সবাজার সেন্ট্রাল হাসপাতালের আইসিইউতে সন্ধায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

রসালো বক্তা খ্যাত সিরাজ বিএ’র মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিলো ৬৫ বছর।

আজ রবিবার (২মে) প্রবীণ প্রয়াত এই নেতার ৩য় মৃত্যু বার্ষিকীতে কক্সবাজার জেলা বিএনপি সভাপতি, সাবেক হুইপ শাহ্জাহান চৌধুরী বলেন, দলের ক্রাইসিসে একজন খাটি জাতীয়তাবাদী আদর্শের ত্যাগী নেতা সিরাজ বিএকে আমরা হারিয়েছি। বিএ’র মৃত্যুর মধ্য দিয়ে আমরা কাকে হারিয়েছি কেবল আমরা উখিয়াবাসী জানি। তিনি মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

কথাশিল্পী গণমানুষের সংগ্রামী নেতা সিরাজ বিএ’র তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে উখিয়াস্থ তার গ্রামের বাড়িতে খতমে কোরআন, দোয়া মাহফিল ও আসরের নামাজের পর আলহাজ্ব সিরাজুল হক বিএ ট্রাস্ট’র উদ্যোগে স্টেশনে ইফতার বিতরণ করা হবে বলে মরহুমের জ্যেষ্ঠ সন্তান মাসুম সিরাজী জানিয়েছেন।

মৃত্যুকালে সিরাজুল হক বিএ সহধর্মিণী, তিন কন্যা ও ২ পুত্র সহ বহু গুণগ্রাহী রেখে যান। পুত্র-কন্যা উভয় উচ্চ শিক্ষিত।

মরহুমের পুত্র জেলা ছাত্রদলের সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুম সিরাজী ও উখিয়া উপজেলা যুবদলের যুগ্ন-আহবায়ক আপেল সিরাজী তাদের পিতার জন্য সকলের নিকট দোয়া চেয়েছেন।

যুবদলের মাধ্যমে সিরাজুল হক বিএ’র রাজনীতির শুরু সর্বশেষ মৃত্যুর আগপর্যন্ত বিএনপির সাথে ছিলেন। গোটা জেলায় সিরাজ বিএ’র বিচরণ ছিল। ১৯৮৮ সালে তিনি এক বক্তব্যে বলেছিলেন “লাল দিঘির পানি যেমন লাল নয়, এরশাদের শাসনও তেমন শাসন নয়” এর পরদিনেই সংগ্রামী এই নেতার বিরুদ্ধে হুলিয়া জারি করে এরশাদ সরকার।

সিরাজুল হক বিএ ১৯৫৩ সালে উখিয়া সদরের ঘিলাতলীতে পিতা সাহাব মিয়া, মাতা নিলোফা হোসনার পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন।

উল্লেখ্য, সিরাজ বিএ’র সাথে একইদিন একই সড়ক দূর্ঘটনায় গুরতর আহত হয়েছিলেন কক্সবাজার জেলা ছাত্রদলের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সিরাজুল হক ডালিম। পরে ৪ মে অর্থাৎ দুই দিন পর চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় সিরাজুল হক ডালিমও মৃত্যুববরণ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •