বার্তা পরিবেশকঃ
গত ২৭ এপ্রিল খুটাখালীতে ব্যবসায়ীর উপর হামলা, নগদ টাকা লুট শিরোনামে অনলাইন পত্রিকা টিটিএন’র মাধ্যম ফেসবুকে যে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে তা কোন অবস্থাতেই সত্য নয়।

প্রকাশিত সংবাদে বস্তুনিষ্টতা, নিরপেক্ষতার কোন ধরণের লেশমাত্র নেই। প্রকাশিত সংবাদে আমাকে জড়িয়ে যে কাহিনী মঞ্চস্থ করা হয়েছে তা একেবারেই মিথ্যা, ভিত্তিহীন, অবিশ্বাস্য, অকল্পনীয়, অযোক্তিক, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও ষড়যন্ত্রমূলক।

তাই প্রকাশিত সংবাদ নিয়ে কাউকে বিভ্রান্ত করার বা হওয়ার অবকাশ নেই।

এবার আসি মূল কথায় গত ২৭ এপ্রিল তারাবি নামাজ চলাকালীন সময়ে আমি খুটাখালী কেন্দ্রীয় মসজিদে নামাজরত ছিলাম।

এসময় বাইরে শোরগোল শুনে মসজিদ থেকে বাহির হই। অনেকের মত আমিও ঘটনাস্থলে যাই এবং দেখতে পাই দু’পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি হচ্ছে।

একপর্যায়ে তাদের নিবৃত্ত করতে গিয়ে উভয় পক্ষকে শান্ত থাকার জন্য অন্যন্যদের মতো মধ্যস্থ করি।

এ বিষয়টিকে ঘোলাটে করতে আমার নেতৃত্বে মারধরের নিউজ করে মুল ঘটনাকে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।

আমার জানামতে ঐ দিন কারো পক্ষপাতিত্ব আমি করিনি, এমনকি ভুমিকাও ছিল না। অহেতুক আমাকে জড়িয়ে মিথ্যাচার করা হয়েছে মাত্র।

আমি সংঘটিত ঘটনার সাথে কোনক্রমেই জড়িত নই বা ছিলাম না। ঘটনার সুষ্ট তদন্ত করলে থলের বিড়াল বেরিয়ে আসবে।

আমি প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে ঘটনার সুষ্ট তদন্তের দাবী জানাই।

 

প্রতিবাদকারী
শামসুল আলম
পিতা- মৃত সোলতান আহমদ
সাং নয়াপাড়া, সবুজপাহাড়,
৯ নং ওয়ার্ড, খুটাখালী, চকরিয়া।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •