সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:

যথাযথ নিয়মে বাঁকখালী নদীর ড্রেজিং করার দাবীতে কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কাছে স্বারকলিপি প্রদান করেছেন সুশাসনের জন্য নাগরিক সুজন রামু উপজেলা কমিটি। ২৬ এপ্রিল বেলা ১২ টায় কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে দাপ্তরিক ভাবে স্বারকলিপি জমাদেন সুজন নেতৃবৃন্দ। পরে জেলা প্রশাসক মোঃ মামুনুর রশিদকে স্মারকলিপির বিষয়বস্তু উপস্থাপন করা হয়।

এ সময় নেতৃবৃন্দ বলেন,সরকার কক্সবাজারে সর্বস্তরের মানুষের দুঃখ দূর্দশা লাঘবের জন্য ঐতিহ্যবাহি বাঁকখালী নদী ড্রেজিং করার উদ্যোগ নিয়েছে। সে হিসাবে বাঁকখালীর নদীর রামু অংশেও ড্রেজিং করা হচ্ছে, তবে আমরা দেখতে পাচ্ছি নদী ড্রেজিংয়ের নামে ব্যাপক অনিয়ম দূর্নীতি হচ্ছে ড্রেজিং করা বালি নদীতেই মজুদ করে রাখা হয়েছে এতে আসন্ন বর্ষা মৌসুমে সামান্য বৃষ্টি হলে সেই বালি বা মাটি আবার নদীতে চলে যাবে। এতে আবার নদী ভরাট হয়ে যাবে। সুতরাং শত কোটিটাকা খরচ করে নদী ড্রেজিং কোন কাজে আসবে না। এছাড়া নদী থেকে সামান্য বালি উত্তোলন করে তা ড্রেজিং হিসাবে দেখানো হচ্ছে এতে নদীর আগের সেই নাব্যতা ফিরে আসবে না। তাই নাগরিক হিসাবে আমাদের দাবী সঠিক ভাবে বাঁকখালী নদী ড্রেজিং করা হউক এবং সাথে নদী ড্রেজিংয়ের সাথে সমস্ত অনিয়ম দূর্নীতি বন্ধ করে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হউক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সুশাসনের জন্য নাগরিক সুজন কক্সবাজার জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান,সুজন রামু উপজেলা শাখার সভাপতি বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ মাস্টার মোহাম্মদ আলম,সহ সভাপতি সাবেক প্রধান শিক্ষক কিশোর বড়–য়া,সহ সভাপতি সংগীত প্রযোজক বশিরুল ইসলাম,সাধারণ সম্পাদক প্রধান শিক্ষক আবদুল হাশেম,সহ সাধারণ সম্পাদক প্রধান শিক্ষক মাহাবুবুল আলম,নির্বাহী সদস্য অধ্যাপক নিলুৎপল বড়ুয়া।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •