চকরিয়া সংবাদদাতা:
চকরিয়ায় ব্রীজ নির্মাণে অনিয়মের তথ্য সংগ্রহে গেলে প্রাণনাশের হুমকির শিকার হয়েছেন চারজন সংবাদকর্মী। এ ঘটনায় হাসানুল ইসলাম আদর নামের একজনের বিরুদ্ধে ২৪ এপ্রিল চকরিয়া প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি দৈনিক মাবকন্ঠ প্রতিনিধি আব্দুল মজিদ, দৈনিক যুগান্তর প্রতিনিধি মনসুর মোঃ মহসিন ও দৈনিক আমার সংবাদ প্রতিনিধি মোহাম্মদ উল্লাহ চকরিয়া থানায় পৃথক জিডি করেন। যার নাম্বার যথাক্রমে ১০০৭/২১, ১০০৮/২১ ও ১০০৯/২১।

অভিযুক্ত হাসানুল ইসলাম আদর ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের তদারকির দায়িত্বে রয়েছেন।

সাধারণ ডায়েরি ও অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার ডুলাহাজারা বঙ্গবন্ধু সাফারী পার্কের দক্ষিণে পূর্ব মাইজপাড়া-শাহ্ সুজাপুর সংযোগ সড়কের বগাইছড়ি ছড়ার উপর ব্রীজ নির্মাণ কাজ চলছে।

কক্সবাজার সড়ক ও জনপদ বিভাগের এই বেইলী ব্রীজ নির্মাণে চলছে ব্যাপক অনিয়ম। সেখানে পরিত্যাক্ত নিন্মমানের সামগ্রী ব্যবহার ছাড়াও রয়েছে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ। গত ২২ এপ্রিলে দুপুর ২টায় সরেজমিনে তথ্য সংগ্রহ করতে যায় চকরিয়ার  কয়েকজন সাংবাদিক।

খবর পেয়ে অভিযুক্ত হাসানুল ইসলাম আদর ক্ষিপ্ত হয়ে জনসম্মুখে ও মুঠোফোনে সংবাদ কর্মীদের প্রকাশ্যে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ ও প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছেন।

এ ব্যাপারে চকরিয়া উপজেলা যুবলীগের সভপতি শহিদুল ইসলাম শহিদ ও সাধারণ সম্পাদক কাউছার উদ্দিন কছির জানান, সাংবাদিকদের হুমকির বিষয়টি প্রমাণিত হলে হাসানুল ইসলাম আদরের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে, সংবাদ সংগ্রহে যাওয়া সাংবাদিক মোহাম্মদ উল্লাহ, আবদুল মজিদ, মনসুর মহসিন ও শাহজালাল শাহেদসহ অজ্ঞাত আরো কয়েকজনের বিরুদ্ধে ২৩ এপ্রিল রাতে থানায় সাধারণ ডায়েরীর আবেদন করেন অভিযুক্ত হাসানুল ইসলাম আদর।

পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে সাংবাদিকদের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে উল্টো থানায় ডায়েরী করতে যাওয়ার বিষয়ে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন চকরিয়া প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ।

প্রেস ক্লাবের সভাপতি এম জাহেদ চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মিজবাউল হক, সিনিয়র সহসভাপতি এমএইচ আরমান চৌধুরী, সহসভাপতি জিয়া উদ্দিন ফারুক, সহসভাপতি মুকুল কান্তি দাশ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক একেএম বেলাল উদ্দিন, অর্থ সম্পাদক জহিরুল আলম সাগর, দপ্তর সম্পাদক সাইফুল ইসলাম খোকন, ক্রীড়া সম্পাদক জামাল হোসেন, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক অলি উল্লাহ রনি, আপ্যায়ন সম্পাদক এসএম হান্নান শাহ, তথ্য প্রযুক্তি সম্পাদক রিদুয়ানুল করিম, নির্বাহী সদস্য এসএম হানিফ, ইকবাল ফারুক, আবদুল মতিন চৌধুরী, ফেরদৌস ওয়াহিদ, জুনাইদ উদ্দিন ও সাইফুল ইসলাম সাইফসহ ক্লাবের সদস্যবৃন্দ।

নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে সাংবাদিকদের হুমকিদাতাকে দ্রুত গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেন। অন্যথায় এর কঠিন পরিণতি ভোগ করতে হবে বলে কঠোর হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন সাংবাদিক সমাজ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •