যুদ্ধক্ষেত্রের কোন সাঁজোয়া যান নয়। নয় কোনো পৃথিবীর উন্নত রাষ্ট্র দুবাই কিংবা সিঙ্গাপুর বন্দরে পর্যটকদের জন্য সাজিয়ে রাখা জলযান। এইগুলি কক্সবাজারের উপকূলীয় দ্বীপ মহেশখালী-কক্সবাজার নৌপথের যাত্রী পারাপারের বাহন স্পিডবোট। চলতি করোনাকালের লকডাউনে পড়ে ঘাটে বাঁধা রয়েছে এই তরি। করোনার সংক্রমণ রোধে যাত্রী পারাপার বন্ধ। তাই পেশা বন্ধ হয়ে আয়-রোজগার হীন নিম্ন আয়ের স্পিডবোট চালকরা নিদারুণ কষ্টে দিনাতিপাত করছে।

২৪ এপ্রিল মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহফুজুর রহমান ২২০ জন স্পিড বোট চালক ও টমটম চালকদের উপজেলা পরিষদে ডেকে নিয়ে ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ এর দেয়া ত্রাণ ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ করে তাদের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ।

ছবি ও প্রতিবেদন: ফরিদুল আলম দেওয়ান ,মহেশখালী


কর্মহারা স্পিডবোট ও টমটম চালকদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •