আব্বাস সিদ্দিকী ,কুতুবদিয়া :

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ মোকাবেলায় কুতুবদিয়ায় পঞ্চম দিনের মতো সর্বাত্মক লকডাউন চলছে। শুরুর ৪দিন কঠোর কড়াকড়ির মধ্যে সীমিত পরিসরে চলাচল করেছে মানুষ ও গাড়ী। কিন্তু পঞ্চম দিনে অনেকটা ঢিলেঢালার মতো পালন হচ্ছে সর্বাত্মক লকডাউন। যদিও লকডাউন বাস্তবায়নে চেকপোস্ট বসিয়ে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছিল কুতুবদিয়া থানার পুলিশ।

রবিবার ( ১৮ এপ্রিল) সকালে কুতুবদিয়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, সড়কে মানুষ ও গাড়ীর উপস্থিতি গত দিনের তুলনায় বেশি। পুলিশ জরুরি সেবা ছাড়া অন্যান্য গাড়ীকে থামিয়ে জিজ্ঞেসাবাদ করছে। তবে মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণে পুলিশের কঠোর চেষ্টা চোখে পড়ার মতো। এছাড়া সড়কে চলাচলকারী লোক যদি জরুরি সেবার সঙ্গে যুক্ত থাকেন তাদেরই শুধুমাত্র চেকপোস্ট অতিক্রম করার অনুমতি দেয়া হচ্ছে। আর যারা জরুরি সেবার আওতায় নন তাদের ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে।

এদিকে, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউন না মেনে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখার দায়ে ধূরুং বাজারে দুই ব্যবসায়ী ও মোটরসাইকেল চালকসহ মোট তিনজনকে ১ হাজার দু’শত টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। নেতৃত্ব দেন জেলার সিনিয়র সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. মোস্তফা জাবেদ কাইসার। এসময় উপস্থিত ছিলেন কুতুবদিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. জালাল উদ্দীনের পুলিশের একটি দল।
উল্লেখ, গত ৫ এপ্রিল থেকে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত চলতি বছরে প্রথম লকডাউন ঘোষণা করে সরকার। সেই সাতদিনের লকডাউন জনগণের উদাসীনতা দেখেই ১৪ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে ২১ এপ্রিল মধ্য রাত পর্যন্ত দ্বিতীয় দফায় সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষণা করে সরকার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •