রামু প্রতিনিধি :
রামুর জোয়ারিয়ানালায় ভূমিগ্রাসী চক্রের হামলায় একই পরিবারের ৩জন আহত হয়েছেন। বৃহষ্পতিবার (১৫ এপ্রিল) বেলা ২টায় জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের নাদের পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। হামলায় আহতরা হলেন-মৃত মৌলভী নুরুল হকের স্ত্রী জাহান আরা বেগম (৬৫), ছেলে মোসাদ্দেক হোসেন (৩০) ও মেয়ে অপি করিম।
হামলায় আহতরা জানান-তাদের বসত ভিটের পাশর্^বর্তী জমি দখল করে স্থানীয় একটি চক্র জোরপূর্বক সীমানা প্রাচীর নির্মাণের চেষ্টা চালিয়ে আসছিলো। বৃহষ্পতিবার দুপুরে ওই এলাকার মৃত আহমদ কবিরের ছেলে রাশেদ কামাল, শাহেদ কামাল, আবদুল্লাহর নেতৃত্বে চক্রটি জোরপূর্বক সীমানা প্রাচীর নির্মাণ এবং সেখানে স্থিত গাছ কাটা শুরু শুরু করে। এসময় মোসাদ্দেক হোসেন বিষয়টি অযৌক্তিক উল্লেখ করে আপোষ-মিমাংসার মাধ্যমে সীমানা নির্ধাণের অনুরোধ জানান। এতে জবর-দখলকারিরা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। এক পর্যায়ে স্থানীয় ছৈয়দ আকবরের ছেলে রহমত উল্লাহ মিমাংসার কথা বলে মোসাদ্দেক হোসেনকে বাড়ির বাইরে ডেকে নিয়ে যান। বাড়ির বাইরে যাওয়া মাত্র রহমত উল্লাহ, রাশেদ কামাল, শাহেদ কামাল ও নুর আহমদের ছেলে আবদুল্লাহ তাকে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত করে।
ছেলে মোসাদ্দেককের আর্তচিৎকারে এগিয়ে আসা মা জাহান আরা এবং বোন অপি করিমকেও রড এবং লাটি-সোটা দিয়ে পিটিয়ে জখম করে হামলাকারিরা। হামলার পর স্থানীয়রা আহত মোসাদ্দেক, জাহান আরা বেগম ও অপি করিমকে রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।
হামলায় আহতরা আরো জানান- এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। তারা আরো জানান-হামলাকারিরা তাদের প্রতিনয়ত মারধর, প্রাণনাশের চেষ্টা এবং মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানির হুমকী দিয়ে আসছিলো। একারনে তারা পরিবার-পরিজন নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।
পবিত্র রমজান মাসে জমি জবর-দখলের উদ্দেশ্যে এ ধরনের রক্তাক্ত হামলায় ঘটনায় এলাকায় চরম ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। এলাকাবাসী এ ঘটনায় দোষিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •