শেফাইল উদ্দিন:

কক্সবাজার সদর উপজেলা ঈদগাঁও বাজারে বৈশ্বিক মহামারি (কোভিট-১৯) করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে মাঠে নামলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুরাইয়া আক্তার সুইটি ।
সোমবার (৫ এপ্রিল ) বৃহত্তর ঈদগাঁও বাজারে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বাজারের অলিগলিতে মাস্ক বিতরণ ও সরকারি ১৮ নির্দেশনা নিয়ে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে নির্দেশনা পালনে অনুরুধ জানান নির্বাহী কর্মকর্তা সুরাইয়া আক্তার সুইটি।
এসময় তিনি ঈদগাঁওবাসীকে করোনা দ্বিতীয় থাবা থেকে বাঁচতে মাস্ক পরিধানসহ সরকারি সকল নির্দেশনা মেনে চলতে বলেন।

এ সময় তিনি আরও বলেন, বিশ্বব্যাপী করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ব্যাপক ভাবে ছড়িয়ে পড়েছে বাংলাদেশে । করোনার বর্তমান স্ট্রেইন ৭০গুন বেশী সংক্রমণ ক্ষমতা সম্পন্ন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জীবন ও জীবিকাকে সমুন্নত রাখার মাধ্যমে দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রাখার জন্য ইতিপূর্বে বেশ কিছু নির্দেশনা প্রদান করেছিলেন। আমরা বুঝে অথবা না বুঝে দিনের পর দিন এসব নির্দেশনাকে অমান্য করেছি। আমরা দেখেছি জন সাধারণের মাঝে একটা অসহিষ্ণু ভাব কাজ করেছে। হঠাৎ করেই আমরা কোন কিছু পরোয়া না করেই বিনোদন কেন্দ্র, সামাজিক অনুষ্টানাদি তথা বিয়ে, মেজবান কিংবা অন্যান্য অনুষ্টানে যোগদানের মাধ্যমে নিজেই নিজের বিপদ সৃষ্টি করেছি। ফলে মহামারি করোনা সংক্রমণ বেড়েই চলছে দিনের পর দিন। এখনই যদি শক্ত হাতে নিয়ন্ত্রণ করা না যায় তাহলে এর ভয়াবহতা আরো বেশি হবে ।

এসব প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করে সরকার জনগনের জীবনের নিরাপত্তা বিধানে (৫ই এপ্রিল) ভোর ৬টা থেকে (১১ই এপ্রিল) রাত ১২টা পর্যন্ত কঠোর বিধি নিষেধ আরোপ করেছে। আর এসব বিধি নিষেধ কঠোর ভাবে পালনের জন্য জনগনকে সচেতন করতে আমাদের এই পথযাত্রা। কঠোর বিধি নিষেধ ছাড়া সরকারের কাছে অন্য কোন পথ ছিলোনা।

এ সময়় উপস্থিত ছিলেন ঈদগাও থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল হালিম এর নেতৃত্বে পুলিশ দল , সাংবাদিক ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •